১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চার জেলের মৃতদেহ উদ্ধার ॥ এখনও নিখোঁজ বহু

  • ঝড়ে ট্রলারডুবি

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট/নিজস্ব সংবাদদাতা, মংলা ॥ বঙ্গোপসাগরে ঝড়ের কবলে পড়ে মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারডুবিতে নিখোঁজ জেলেদের মধ্যে চারজনের মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেল তিনটার দিকে সুন্দরবনের দুবলা জেলেপল্লীর আলোরকোল ও মরার চর এলাকা থেকে মৃতদেহগুলো উদ্ধার করা হয়। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

দুবলা ফিশারমেন গ্রুপের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহানূর রহমান শামীম জানান, বঙ্গোপসাগর উপকূলের আলোরকোলের লাইট হাউস এলাকা থেকে তিনটি এবং মরার চরের কাছ থেকে একটি মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। তবে তাৎক্ষণিকভাবে তাদের পরিচয় জানা যায়নি। গত ২০ সেপ্টেম্বর ঝড়ের কবলে পড়ে ট্রলার ও নৌকাডুবির পর এরা নিখোঁজ ছিলেন। এখনও অনেক জেলে নিখোঁজ রয়েছেন বলে তিনি

উল্লেখ করেন। মঙ্গলবারেও বাগেরহাট দড়াটানা নদীর কেবি ট্রলার ঘাটে নিখোঁজ জেলেদের স্বজনদের আহাজারি করতে দেখা গেছে। একটি ট্রলার ঘাটে ভিড়লেই তারা ছুটে যাচ্ছেন। ফিরে আসা জেলেদের জড়িয়ে কেউ কেউ কাঁদছেন।

উপকূলীয় মৎস্যজীবী সমিতির সভাপতি শেখ ইদ্রিস আলী মঙ্গলবার দুপুরে বলেন, এ পর্যন্ত ৩০ জনের মতো ফিরে এসেছে। কেউ হাসপাতালে, আবার কেউ ক্লিনিকে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরছেন। বাগেরহাট কেবি মৎস্য আড়তের ব্যবসায়ী আব্দুস সালাম হাওলাদারের ট্রলার ‘এফবি সাগর-২’-এর নিখোঁজ ১৩ জনের মধ্যে উদ্ধার হলো নয়জন। এফবি সাগর-২ ট্রলারের নিখোঁজ চারজন হল ইব্রাহিম, সিদ্দিক মিস্ত্রি, বেতিবুনিয়া গ্রামের ওহাব ও সাখাওয়াত। স্থানীয় জেলেরা জানান, ১৩ জেলে সাগর থেকে ফিরে এলেও এখনও বাগেরহাটের প্রায় ৪০-৫০ জেলের কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। এদের অধিকাংশের বাড়ি বাগেরহাটের কচুয়ার বগা গ্রামে। এই এলাকার জেলেদের নিয়ে সাগরে মাছ ধরে যাওয়া এফবি শাহজাহান, এফবি আউয়াল, এফবি রুপক ও এফবি সজল নামে চারটি ট্রলারের ৬০ জেলের মধ্যে ১৩ জনের সন্ধান পাওয়া গেলেও এখন নিখোঁজ রয়েছে অন্তত ৪৭ জন। মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত বরগুনা, পটুয়াখালী, চট্টগ্রাম, বাগেরহাট ও খুলনার প্রায় ২৫০ জেলে উদ্ধার হয়েছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে।

দুই ট্রলারকে এক লাখ টাকা জরিমানা ॥ আকস্মিকভাবে ঝড়ের কবলে পড়ে মংলার পূর্ব সুন্দরবনের চাদপাই রেঞ্জের ঢাংমারীর পশুর নদীতে ঢুকে পড়ায় দুটি ট্রলারকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে বন বিভাগ। সোমবার রাতে মংলার ঢাংমারী এলাকা থেকে এফবি আশীর্বাদ ও মরা পশুর এলাকা থেকে এফবি মনীষা নামে ট্রলার দুটি আটক করে বন বিভাগ। আইন অমান্য করে অবৈধভাবে সুন্দরবনের পশুর চ্যানেলে প্রবেশের অভিযোগে ট্রলার প্রতি ৫০ হাজার টাকা নগদ জরিমানা আদায় করে বন বিভাগ। এ সময় ট্রলার দুটিতে থাকা ৫৩ জেলেকে আটক করা হয়।