২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১০ ॥ আহত পাঁচ

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ সোমবার রাত ও মঙ্গলবার সড়ক দুর্ঘটনায় দেশের বিভিন্ন জেলায় নিহত হয়েছে ১০ জন। আহতদের সংখ্যা পাঁচ। স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের পাঠানো খবরÑ

সিরাজগঞ্জ ॥ মঙ্গলবার সকাল ও সোমবার রাতে সিরাজগঞ্জে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ সিএনজি যাত্রীসহ ৫ জন নিহত ও দুইজন আহত হয়েছে।

নিহতরা হলেনÑ পাবনা জেলার চর আসুতোষপাড়া গ্রামের বিপ্লব (২২) আলমগীর হোসেন (২৪) এবং বাচ্চু মিয়া (২০) এবং অটোরিক্সা চালক ফুলচান মিয়া (৫০) বলে জানা গেছে।

উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তাজুল হুদা জানান, সোমবার রাত ১১টার দিকে সিরাজগঞ্জ হাটিকুমরুল থেকে পাবনাগামী সিএনজি চালিত অটোরিক্সাযোগে সাতযাত্রী পাবনা যাচ্ছিল। এ সময় বিপরীত দিক থেকে পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক শ্যামলীপাড়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়।

গাজীপুর ॥ শ্রীপুরে মঙ্গলবার সড়ক দুর্ঘটনায় কন্টিনেন্টাল কুরিয়ার সার্ভিসের এক কাভার্ডভ্যানের চালক নিহত ও হেলপার আহত হয়েছে। নিহতের নাম ইউসুফ আলী (৩৫)। সে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার পাঁচগাঁও গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে।

ময়মনসিংহ থেকে কন্টিনেন্টাল কুরিয়ার সার্ভিসের একটি কাভার্ড ভ্যান মঙ্গলবার সকালে ঢাকা যাচ্ছিল। পথে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের শ্রীপুরের এমসি বাজার এলাকায় চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে ওই কাভার্ডভ্যানটি অপর একটি গাড়ির পেছনে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে কাভার্ডভ্যানের সামনের অংশ দুমড়ে মুচড়ে যায়।

কিশোরগঞ্জ ॥ মাইক্রোবাস ও সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষে গোলাপ মিয়া (৫৫) ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছে। এ সময় আরও ৪ যাত্রী গুরুতর আহত হয়। পরে মঙ্গলবার ভোররাতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও দুইজনের মৃত্যু হয়ে বলে জানা গেছে।

পুলিশ ও অন্য সূত্র জানায়, সোমবার রাতে কিশোরগঞ্জ-ময়মনসিংহ মহাসড়কের সদরের কাটাবাড়িয়া নামক স্থানে দ্রুতগামী যাত্রীবিহীন মাইক্রোবাসের সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা যাত্রীবাহী সিএনজির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে সদরের পূর্ব কাতিয়ারচরের বাসিন্দা সিএনজি চালক গোলাপ মিয়া (৫৫) ঘটনাস্থলেই নিহত হয়। এ সময় সিএনজি যাত্রী সদরের কাটাবাড়িয়া গ্রামের রোকন উদ্দিনের ছেলে রাজু মিয়া (২৫), একই গ্রামের হিরু মিয়ার ছেলে সম্রাট মিয়া (২২), ডাহুকিয়া গ্রামের আবদল বারিকের ছেলে হযরত আলী (২৫) ও নেত্রকোনার কেন্দুয়ার পাইকুড়া গ্রামের হাফিজ উদ্দিনের ছেলে পাভেল (২০) গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। সেখানে মঙ্গলবার ভোররাতে রাজু মিয়া ও হযরত আলী দুইজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ ॥ চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার চাঁপাইনবাবগঞ্জ-গোমস্তাপুর সড়কের সরজন এলাকায় ভারি বর্ষণে কালভার্ট ও সড়ক ভেঙে সৃষ্ট খাদে মঙ্গলবার ভোরে এ্যাম্বুলেন্স পড়ে চালক নিহত হয়েছে। এরপর থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরের সঙ্গে গোমস্তাপুর উপজেলার যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। নিহত ব্যক্তি হচ্ছে, জেলার গোমস্তাপুর উপজেলার রহনপুর পৌর এলাকার কোয়াটার পাড়ার আব্দুল ওহাবের ছেলে আবেদ আলী (৫০)। তিনি গোমস্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এ্যাম্বুলেন্স চালক ছিলেন।