২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঈদের দিন হাল্কা বৃষ্টি হতে পারে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রোদ-বৃষ্টির লুকোচুরি খেলার মধ্যেই কাটতে পারে ঈদের দিনটি। রৌদ্র ঝলমল আকাশে কালো মেঘের ঘনঘটায় হালকা বৃষ্টি হলেও প্রভাব পড়বে না ঈদ আনন্দে। ভারি বর্ষণ হওয়ার সম্ভাবনা নেই। সাগরে লঘুচাপ কেটে গেছে। সব মিলিয়ে ঈদ-উল-আযহার দিনে ভাল আবহাওয়া বিরাজ করবে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক শাহ আলম। তবে বুধবারও রাজধানীসহ দেশের অনেক জেলায় মাঝারি থেকে ভারি বর্ষণ হয়েছে। দুর্ভোগে পড়ে ঘরমুখী লোকজন।

সাগরে লঘুচাপের প্রভাবে গত কয়েকদিন সারাদেশেই বৃষ্টি হচ্ছে। আগামীকাল শুক্রবার পালিত হবে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা। এ বছর গত রোজার ঈদে টানা তিন দিনের বৃষ্টিতে ঈদ আনন্দে বিঘœ ঘটে। ঘরে বসেই কাটাতে হয় ছুটির দিনগুলো। তবে ত্যাগের মহিমায় উজ্জীবিত হয়ে পালিত ঈদ-উল-আযহার উৎসবে তেমন একটা বিঘœ ঘটাতে পারছে না বৃষ্টি। অধিদফতরের পরিচালক শাহ আলম বুধবার জনকণ্ঠকে জানান, লঘুচাপের কারণে গত কয়েকদিন ধরে বৃষ্টি হচ্ছে। তবে ঈদের দিন পর্যন্ত এর প্রভাব থাকবে না। লঘুচাপও কেটে গেছে। ওদিন বৈরী আবহাওয়া কিংবা ভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা নেই। শুক্রবার দেশের অধিকাংশ এলাকায় রোদেলা আবহাওয়া থাকতে পারে। বলেন, ঈদের দিন বৃষ্টি হতে পারে। কিন্তু কম থাকবে। টানা বৃষ্টি হবে না। দেশের দু/এক জায়গায় হালকা বৃষ্টিপাত হবে। রৌদ্র থাকবে। লঘুচাপের প্রভাব না থাকায় ভাল আবহাওয়াই বিরাজ করবে।

আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বর্ধিতাংশ উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের উত্তরাংশ হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে অসম পর্যন্ত বিস্তৃত। এর একটির বর্ধিতাংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকা, রংপুর, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

নির্বাচিত সংবাদ