২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নিরাপত্তা ঝুঁকিতে অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ যাত্রা বিলম্বিত

নিরাপত্তা ঝুঁকিতে অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ যাত্রা বিলম্বিত

অনলাইন ডেস্ক॥ নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণ দেখিয়ে অস্ট্রেলিয়া তাদের টেস্ট ক্রিকেট দলের বাংলাদেশে যাওয়া বিলম্বিত করছে।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী জেমস সাদারল্যান্ড এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন সরকারি সূত্রের পরামর্শের পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বাংলাদেশে অস্ট্রেলিয়ার জন্য সম্ভাব্য নিরাপত্তা ঝুঁকি রয়েছে বলে সরকারী পরামর্শে বলা হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট ক্রিকেট দলের রওনা হওয়ার কথা ছিল সোমবার। কিন্তু নিরাপত্তা বিষয়ক পরবর্তী পরামর্শ না আসা পর্যন্ত তাদের যাত্রা স্থগিত রাখা হচ্ছে।

জেমস সাদারল্যান্ড তার বিবৃতিতে বলেছেন, অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্র এবং বাণিজ্য দফতরের পরামর্শ তারা পেয়েছেন এবং এর ভিত্তিতে তারা এখন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড এবং নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে মিলে একটি নতুন নিরাপত্তা পরিকল্পনা তৈরি করছেন।

তিনি আরও বলেন, তারা এই সফরে যেতে চান এবং সেই অনুযায়ী পরিকল্পনাও করছেন। কিন্তু খেলোয়াড় এবং টিম সদস্যদের নিরাপত্তার ব্যাপারটি তাদের কাছে সবচেয়ে বেশি অগ্রাধিকার পাচ্ছে।

তবে কি ধরণের নিরাপত্তা ঝুঁকির কারণে এই সফর পেছানো হচ্ছে তার কোন বিস্তারিত তথ্য ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া দেয়নি।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দীন চৌধুরি বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়া দলের যাত্রা যে বিলম্বিত হচ্ছে নিরাপত্তার কারণে সেটা তাদেরকে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

তিনি আরও জানান, বাংলাদেশে নিরাপত্তা ঝুঁকি খতিয়ে দেখতে অস্ট্রেলিয়ার একটি নিরাপত্তা প্রতিনিধিদল আগামীকালের মধ্যে ঢাকায় আসবে। এরপর তারা অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট বোর্ডকে তাদের মতামত জানাবে।

নিজামউদ্দীন চৌধুরি আরও বলেন, অস্ট্রেলিয়া দলের সফরসূচীতে কোন পরিবর্তন হবে না বলেই তারা আশা করছেন। সব ম্যাচ সময় মত হবে বলে তারা আশাবাদী। কারণ বাংলাদেশে রাজনৈতিক বা অন্য কোন কারণে কোন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচে কখনোই বিঘ্ন হয়নি।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার প্রথম টেস্ট শুরু হওয়ার কথা চট্টগ্রামে ৯ই অক্টোবর। দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে ঢাকায় ১৭ই অক্টোবর।

এছাড়া তিন দিনের এক ট্যুর ম্যাচ শুরু হওয়ার কথা সামনের শনিবার ফতুল্লায়। এই ম্যাচ এখন হতে পারবে কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

সূত্র : বিবিসি বাংলা