২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গফরগাঁওয়ে বাকি শার্ট না দেওয়ায় যুবক হত্যা

নিজস্ব সংবাদদাতা, গফরগাঁও॥ ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে বাকিতে ঈদের নতুন শার্ট নেওয়াকে কেন্দ্র করে যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। ঘটনাটি ঘটে গত বৃহস্প্রতিবার (ঈদের আগেরদিন) রাত ৯টার দিকে উপজেলার চরআলগী ইউনিয়নের চরমছলন্দ কান্দাপাড়া গ্রামে। ঘটনার পরপরই এলাকাবাসী তিন ভারাটে খুনিকে আটক করে পুলিশকে খবর দিলে গফরগাঁও থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে তাদেরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

জানা যায়, উপজেলার চরমলন্দ কান্দাপাড়া গ্রামের মাজহারুল টেইলার্সে ৫বন্ধু ঈদের জন্য শার্ট বানানোর অর্ডার দেয়। পরে বৃহস্প্রতিবার ঈদের আগের দিন সন্ধায় ৪বন্ধু তাদের বানানো শার্টগুলো নিয়ে যায়। এদিকে বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে অপর বন্ধু সাদ্দাম হোসেন ৭/৮জন লোক নিয়ে মাজহারুল টেইলার্সে গিয়ে ৫টি শার্ট দাবী করে। এ সময় ট্রেইলার্স মালিক মাজহারুল তাকে জানায় আপনার ৪বন্ধু ৪টি শার্ট নিয়ে গেছে। এখন শুধু আপনার শার্টটিই রয়েছে। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে মাজহারুলের বড় ভাই এজাহার এগিয়ে গেলে সাদ্দাম এজাহারের পেটে ছুরিকাঘাত করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় এজাহারকে প্রথমে গফরগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে অবস্থার অবনতি ঘটলে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে এজাহার মারা যায়। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই মাজাহারুল বাদী ১১জন নামিয় অজ্ঞাতনামা ৪/৫জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। ঘটনার দিন রাতে ১০টার দিকে পুলিশ হত্যাকারী সাদ্দামের ৩ বন্ধু দ্বীন ইসলাম, বাবু ও শরিফুলকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

গফরগাঁও থানাও ওসি তোফাজ্জেল হোসেন বলেন, হত্যাকান্ডের ঘটানা জগিড় থাকা ৩জনকে ময়মনসিংহ জেলা হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। পলাতক আসামী গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।