১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আলাউদ্দিন আলীকে ব্যাঙ্ককে নেয়া হবে

আলাউদ্দিন আলীকে ব্যাঙ্ককে নেয়া হবে

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের প্রতিথযশা সঙ্গীত ব্যক্তিত্ব আলাউদ্দিন আলীকে চিকিৎসার জন্য ব্যাঙ্ককে নেয়া হবে। পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ঈদের দিন রাতে হঠাৎই অসুস্থ হয়ে পড়েন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই সঙ্গীতকার। খাওয়ার পরই বমি করতে থাকেন। দ্রুত তাকে রাজধানীর আয়েশা মেমোরিয়াল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে আইসিইউতে একদিন চিকিৎসা নেয়ার পর বাসায় নেয়া হয়। কেমোথেরাপি ও রেডিওলজির থেরাপির পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কারণেই তিনি অসুস্থ হয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। শরীর দুর্বল থাকায় আলী চলাচল তেমন একটা করছেন না। আর মাঝে মধ্যেই বমি হচ্ছে তার। এ বিষয়ে আলাউদ্দিন আলীর স্ত্রী মিমি আলাউদ্দিন জানান, আগামী ১৩ অক্টোবর চিকিৎসার জন্য তাকে ব্যাঙ্ককে নিয়ে যাওয়া হবে। আলাউদ্দিন আলীর জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা। গত ২০ জুন পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর ফুসফুসে সমস্যা ধরা পড়ে। ব্যাঙ্ককের স্যামিটিভেজ সুকুমভিত হাসপাতাল থেকে চিকিৎসাও নিয়েছেন। কেমোথেরাপি আর রেডিওলোজি থেরাপি নিয়ে গতমাসের শেষদিকে দেশে ফিরেন কিংবদন্তি এই সঙ্গীত পরিচালক। আলাউদ্দিন আলীর সুর করা জনপ্রিয় গানের মধ্যে রয়েছেÑ ‘ও আমার বাংলা মা তোর’, ‘সূর্যোদয়ে তুমি সূর্যাস্তেও তুমি’, ‘আমায় গেঁথে দাওনা মাগো’, ‘যে ছিল দৃষ্টির সীমানায়’, ‘সুখে থাকো ও আমার নন্দিনী’, ‘যেটুকু সময় তুমি থাকো কাছে’, ‘আছেন আমার মুক্তার’, ‘হায়রে কপাল মন্দ’, ‘চোখের নজর এমনি কইরা’, ‘সবাই বলে বয়স বাড়ে’, ‘কেউ কোনদিন আমারে তো কথা দিলো না’, ‘এমনও তো প্রেম হয়’, ‘এই দুনিয়া এখন তো আর’, ‘পারিনা ভুলে যেতে’, ‘জন্ম থেকে জ্বলছি মাগো’, ‘দুঃখ ভালোবেসে প্রেমের খেলা খেলতে হয়’, একবার যদি কেউ ভালোবাসতো’, ‘বাবা বলে গেলো আর কোনদিন’, ‘কত কাঁদলাম কত সাধলাম’, ‘ভেঙ্গেছে পিঞ্জর মেলেছে ডানা’, ‘শত জনমের স্বপ্ন’, ‘এই সকালটা যে তোমার’, ‘ভালোবাসা যত বড় জীবন তত বড় নয়’, ‘তুমি এমন কোন কথা বলো না’ প্রভৃতি।