১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নয়া চ্যালেঞ্জে পশ্চিমারা

নয়া চ্যালেঞ্জে পশ্চিমারা

সিরিয়া প্রশ্নে পাশ্চাত্যের উদ্দেশে নতুন চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন। তিনি বলেছেন যে, তিনি আসাদ সরকারকে হটাতে পাশ্চাত্যের পরিকল্পনা ব্যর্থ করে দিতে দৃঢ় সংকল্প। তিনি ইরাক ও ইরানের সঙ্গে নীতিগত সমন্বয় সাধন করতে বাগদাদে তার জেনারেলদের পাঠিয়েছেন। খবর টেলিগ্রাফ ও এএফপির।

পুতিন স্বীকার করেন যে, সিরিয়াতে তার ২৮টি জঙ্গীবিমান ও সাঁজোয়া যানবহরসহ অস্ত্রশস্ত্র ও হাজার হাজার সৈন্য পাঠানোর লক্ষ্য হলো প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের সঙ্কটাপন্ন সরকারের শক্তি বৃদ্ধি করা। সিবিএসের সঙ্গে এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, হ্যাঁ, আপনি ঠিক বলেছেন। আমি গভীরভাবে বিশ্বাস করি যে, সিরিয়ার বৈধ সরকারকে ধ্বংস করতে যে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ এমন এক পরিস্থিতির সৃষ্টি করবে, যা আপনারা এ অঞ্চলের অন্যান্য দেশে বা অন্যান্য অঞ্চলে যেমন লিবিয়ায় দেখতে পান, সেখানে সব রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠানকে খ--বিখ- করে দেয়া হয়েছেন। তিনি বলেন, সিরিয়ার কার্যকর সরকারী কাঠামোগুলোকে আরও শক্তিশালী করা এবং সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সেগুলোকে সহায়তা করা ছাড়া দেশটির সঙ্কটের আর কোন সমাধান নেই। যুক্তরাষ্ট্র ও এর পশ্চিমা মিত্ররা চার বছর ধরে জিদ প্রকাশ করে এসেছিল যে, সিরীয় সঙ্কটের যে কোন সমাধানের আওতায় আসাদকে অবশ্যই পদত্যাগ করতে হবে। বিদেশে অবস্থানরত রাজনৈতিক বিরোধীপক্ষ ও তার বিরুদ্ধে লড়াইরত সব বিদ্রোহী দলের এটিই মূল দাবি। যুক্তরাষ্ট্রের মতো ব্রিটিশ সরকারও অবস্থান পাল্টিয়েছে। ব্রিটেন আভাস দিচ্ছে যে, যখন কোন অন্তর্বর্তী সরকার নিয়ে আলোচনা এবং সেই সরকারকে ক্ষমতায় বসানোর প্রক্রিয়া চলবে, তখন আসাদ ক্ষমতায় থাকতে পারবেন। তাকে উৎখাত করা হলে পরিস্থিতির আরও অবনতি ঘটবে এ যুক্তি খ-ন করতেই ব্রিটেন ওই আভাস দিচ্ছে।

ফরাসী সংবাদপত্র লা মদের সঙ্গে এক সাক্ষাতকারে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফিলিপ হ্যামন্ড বলেন, আসাদকে অবশ্যই বিদায় নিতে হবে, তিনি সিরিয়ার ভবিষ্যত সরকারে থাকতে পারবেন না। তিনি আরও বলেন, যদি আমরা কোন অন্তর্বর্তী কর্তৃপক্ষ সম্পর্কে কোন চুক্তিতে পৌঁছাই এবং আসাদ সেই কর্তৃপক্ষের অংশ হন, তবে এ প্রক্রিয়ার অন্যতম সক্রিয় অংশ হিসেবে তার সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজন হবে। পুতিন সোমবার জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের ফাঁকে প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে দেখা করবেন। হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র জোশ আর্নেস্ট বলেন, রুশরা বারবার অনুরোধ করায় ওবামা পুতিনের সঙ্গে সাক্ষাত করতে রাজি হয়েছেন। পুতিন ইউক্রেনের সংঘাত এবং সেখানে কিয়েভবিরোধী বিদ্রোহীদের প্রতি মস্কোর সমর্থনকে কেন্দ্র করে রাশিয়ার ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা নিয়ে আলোচনা করতে আগ্রহী। ক্রেমলিন বলেছে, এটি সত্যের বিকৃতি এবং সিরিয়াই প্রধান আলোচ্য বিষয় হবে। সিরিয়ায় রাশিয়ার পদক্ষেপ ওই সংঘর্ষে জড়িত সবপক্ষের হিসাব-নিকাশ পাল্টে দিয়েছে। পুতিনের কথাবার্তা স্পষ্ট করে দিয়েছে যে, তিনি সিরীয় সরকারকে পশ্চিমাসমর্থিত বিদ্রোহী ও ইসলামিক স্টেটের বিরুদ্ধে আত্মরক্ষার্থে সহায়তা দিতে প্রস্তুত। বিদ্রোহীরা দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে এখন এগিয়ে রয়েছে।

এর ফলে বিদ্রোহীদের আরও সাফল্য যে আসাদকে আলোচনার টেবিলে বসাতে বাধ্য করতে পারবেÑ এমন সম্ভাবনা স্তিমিত হয়ে গেছে। বাগদাদে রুশ সেনা অফিসারদের সমাগম ঘটছে বলে মার্কিন কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে ফক্স নিউজ জানায়, ইরাকে স্থাপিত নতুন রুশ কেন্দ্র ইরানপন্থী শিয়া মিলিশিয়াদের প্রতি রুশ সমর্থনের ক্ষেত্রে সমন্বয় সাধন করবে।