২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চরম দারিদ্র্য নির্মূল জাতিসংঘ লক্ষ্যের প্রতি সমর্থন পপ স্টার ও বিশ্ব নেতৃবৃন্দের

চরম দারিদ্র্য নির্মূলে পদক্ষেপ গ্রহণে উৎসাহ যোগাতে প্রখ্যাত সঙ্গীত তারকা বিয়ন্সে থেকে শুরু করে ইউরোপীয় প্রধানমন্ত্রীরা শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন। চতুর্থ বার্ষিক গ্লোবাল সিটিজেন ফেস্টিভ্যালে জাতিসংঘের নতুন উন্নয়ন লক্ষ্যের প্রতি আরও সমর্থন দেয়ার আহ্বান জানানো হয়। নিউইয়র্কের সেন্ট্রাল পার্কে আয়োজিত এই কনসার্টে প্রায় ৬০ হাজার দর্শক অংশ নেয়। বিয়ন্সে ছাড়াও এতে আরও অংশ নেন পার্ল জ্যাম ও কোল্ডপ্লে, ইংলিশ পপ তারকা এ্যাড শিরান, র‌্যাপার কমন এবং ভারতের বলিউড সঙ্গীত তারকা সুনিধি চৌহান। খবর এএফপির।

এই অনুষ্ঠানে হঠাৎ করেই উপস্থিত হন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা।

বিশ্বব্যাপী স্কুলে যেতে না পারা আনুমানিক ছয় কোটি ২০ লাখ মেয়ের পক্ষে প্রচার চালাতে তিনি দর্শকদের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারের জন্য অনুপ্রাণিত করেন। মিশেল বলেন, আমার ও আপনাদের মেয়ে এবং আমাদের সব শিশুর মতো এই মেয়েদেরও শিক্ষার সুযোগ প্রাপ্য। জাতিসংঘ শুক্রবার ২০৩০ সালের মধ্যে চরম দারিদ্র্য নির্মূলের একটি লক্ষ্য অনুমোদন করেছে। এতে মেয়েশিশুদের জন্য সুবিধা এবং পরিবারের ভবিষ্যতের জন্য সুদূরপ্রসারী বিনিয়োগের দিকে মনোযোগ দেয়া হবে। তথাকথিত ‘টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য’ ব্যাপক সরকারী অনুমোদন সত্ত্বেও এটি একটি বিশাল অঙ্গীকার। কারণ এই লক্ষ্য অর্জনে প্রতি বছর পাঁচ ট্রিলিয়ন ডলারেরও বেশি খরচ হবে বলে জাতিসংঘের অনুমান।