২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভৈরবে পানিতে ডুবে কলেজ ছাত্রীর মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, ভৈরব, ২৭ সেপ্টেম্বর ॥ নানার বাড়িতে ঈদ করতে এসে পানিতে ডুবে তামান্না ইসলাম (১৮) নামে এক কলেজছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। ভৈরবের সাতমুখী বিলে গোসলের সময় পানিতে পড়ে যাওয়া ২ শিশুকে উদ্ধার করতে গিয়ে এ দুর্ঘটনার শিকার হয় তামান্না। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সে নারায়ণগঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। গ্রামের বাড়ি নারায়ণগঞ্জ, পিতার নাম রফিকুল ইসলাম।

নীলফামারীতে শিশু

স্টাফ রিপোর্টার নীলফামারী থেকে জানান, পুকুরে ডুবে তিন বছরের শিশুকন্যা আয়শা আক্তারের মৃত্যু হয়েছে। ঈদের দিন বিকেলে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার গয়াবাড়ী ইউনিয়নের দক্ষিণ গয়াবাড়ী গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। শিশুটি সেই গ্রামের মুদি ব্যবসায়ী রবিউল ইসলামের মেয়ে।

চাঁদপুরে দুই শিশু

নিজস্ব সংবাদদাতা চাঁদপুর থেকে জানান, হাজীগঞ্জের শ্রীপুরে ও সদর উপজেলার আশিকাটিতে আরমান (৭) ও মোহাম্মদ (২) নামে দুই শিশু পানিতে ডুবে মৃত্যুবরণ করেছে। রবিবার হাজীগঞ্জ উপজেলার শ্রীপুর বেপারি বাড়িতে বেলা ১১টায় এবং সদর উপজেলার বাবুরহাট এলাকার আশিকাটি গ্রামে দুপুর ১২টায় পৃথক মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। আরমান শ্রীপুর গ্রামের সেলিম মিয়ার ছেলে এবং মোহাম্মদ আশিকাটি গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে।

মাগুরায় শিশু

নিজস্ব সংবাদদাতা মাগুরা থেকে জানান, রবিবার দুপুরে মহম্মদপুরের খালিয়া গ্রামে পানিতে ডুবে মহুয়া (৬) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। পুকুরে পড়ে গেলে তার মৃত্যু হয়।

নওগাঁয় শিশু

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ থেকে জানান, ঈদ আনন্দ করতে গিয়ে নার্সারি পার্কের পুকুরে ডুবে সাদিক (১২) এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ঈদের দিন বিকেলে শহরের বাইপাস সড়কের বোয়ালিয়া নার্সারি খামারবাড়ির (পার্ক) পুকুরে। নিহত সাদিক শহরের উকিলপাড়া সেবাশ্রম সড়কের জনৈক আশিক বাবুর পুত্র বলে জানা গেছে।

কক্সবাজার সৈকতে দুই কিশোরীর মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ সমুদ্র সৈকতে গোসল করতে নেমে দুই কিশোরীর মৃত্যু ঘটেছে। শনিবার দুপুরে সৈকতের কলাতলী পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শনিবার দুপুরের দিকে কক্সবাজার শহরের লারপাড়া গ্রামের ছয় কিশোরী মিলে একসঙ্গে সমুদ্র সৈকতে গোসল করার সময় তিনজন পানিতে ডুবে যায়। ট্যুরিস্ট পুলিশ ওই তিনজনকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক দুইজনকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতরা হচ্ছে, পশ্চিম লারপাড়ার লোকমান হাকিমের মেয়ে তাসমিনা আক্তার (১১) ও কুতুপালং শরণার্থী ক্যাম্প থেকে বেড়াতে আসা মিনা আক্তার (১২)। আহত অপর কিশোরী চিকিৎসাধীন রয়েছে।