২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তাহির বিষয়ে সতর্ক করলেন শচীন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ যে দলই ভারত সফরে আসে ক্রিকেট খেলতে তাদের জন্য অপেক্ষা করে এক ধরনের ফাঁদ। ভারতের মাটিতে যে কোন সফরকারী দলের জন্যই স্বাভাবিক খেলাটা বেশ কঠিনতম একটি কাজ। বিশেষ করে উপমহাদেশের বাইরে থেকে আগত দলগুলোকে অনেক বড় চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করতে হয়। কারণ তাদের ঘায়েল করার জন্য স্পিনবান্ধব উইকেট গড়া থাকে। বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দল আছে ভারত সফরে। পূর্ণাঙ্গ এ সিরিজটি বেশ লম্বা- ৩ টি২০, ৫ ওয়ানডে ও ৪ টেস্ট। কিন্তু এবারও স্পিন দিয়ে প্রোটিয়াদের নাস্তানাবুদ করার চিন্তা থাকলে নিজেরাই সেই ফাঁদে জড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কারণ বর্তমানে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা লেগস্পিনার ইমরান তাহির স্পিন স্বর্গ পেয়ে আরও ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারেন। এ কারণে কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকর তার উত্তরসূরিদের সতর্ক করলেন আগেভাগে। লিটল মাস্টার মনে করেন প্রোটিয়াদের পক্ষে সবচেয়ে ভয়াবহ বোলার হয়ে উঠতে পারেন তাহির। তাই ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের খুব সতর্ক থেকে তাকে মোকাবেলা করতে হবে এমনটাই দাবি করলেন শচীন।

৩৬ বছর বয়সী তাহির অবশ্য গত আগস্টে বাংলাদেশ সফরে তেমন সুবিধা করতে পারেননি। তিন ওয়ানডে খেলে মাত্র দুই উইকেট নিতে পেরেছিলেন। তবে এরপরই ঘরের মাঠে সফরকারী নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ভাল করেছেন তিনি। দারুণ ছন্দে আছেন এ লেগস্পিনার। দক্ষিণ আফ্রিকার বোলিং বিভাগের শক্তিমত্তা নিয়ে কথা বলার সময় শচীন এগিয়ে রেখেছেন তাই তাহিরকে। কারণ ভারতের মাটিতে স্পিনবান্ধব উইকেটে তিনি ঝলক দেখাতে পারেন। আসন্ন সিরিজে শচীন দু’দলের কাউকেই এগিয়ে রাখছেন না। তিনি মনে করেন উভয়দলই বেশ সমৃদ্ধ এবং যথেষ্ট ব্যালান্সড। এ বিষয়ে শচীন মুম্বাইয়ে এক অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের বলেন, ‘এবি ডি ভিলিয়ার্স ও হাশিম আমলা কঠিন খেলোয়াড় এবং ডেল স্টেইন ও মরনে মরকেলকে ভুলে গেলে চলবে না। কিন্তু গুগলি নিয়ে কথা বলতে গেলে ইমরান তাহির অন্যতম সেরা একজন স্পিনার সেক্ষেত্রে। তার বিপক্ষে আমাদের অনেক ভাল খেলতে হবে। তিনিই সবার চেয়ে ভাল বোলার হিসেবে সিরিজ শেষ করতে পারেন।’

শচীন মনে করেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা নিজেদের সর্বোচ্চ সেরাটা উপহার দিতে প্রস্তুত আছে এবং দক্ষিণ আফ্রিকা ধারাবাহিকভাবে যেমন ভাল করছে সেটার সঙ্গে সমানতালেই লড়তে পারবে। এ কারণে তিনি আশা করছেন খুবই প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ একটি সিরিজ হবে। এ বিষয়ে শচীন বলেন, ‘আমি মনে করি ভারতীয় দল চমৎকার। তারা দারুণ মেধাবী এবং ভাল কিছু করতে প্রস্তুত। ছেলেদের আমি খুব কাছ থেকে দেখেছি এবং ভালভাবেই তাদের চিনি। ক্রিকেট মাঠে দারুণ কিছু করার জন্য তারা মুখিয়ে থাকে। দারুণ এক প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ সিরিজ হতে যাচ্ছে। আমি টেস্ট সিরিজের দিকে বিশেষ নজর দেব। উভয়দলই দারুণ ব্যালান্সড। সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা গুণগত মানের দিক থেকে উন্নত। আমি এমন কোন প্রোটিয়া দলের বিপক্ষে কখনও খেলিনি যারা মাঝারি মানের দল ছিল। তারা সবসময়ই শক্তিশালী দল এবং এবারেও কোন ব্যতিক্রম নেই।’ মঙ্গলবার একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে এবার ভারত সফরে মাঠের লড়াই শুরু করবে প্রোটিয়ারা। মূল সিরিজ শুরু ২ অক্টোবর। তিন টি২০ সিরিজের প্রথমটি অনুষ্ঠিত হবে সেদিন ধর্মশালায়। এরপর আছে ৫ ওয়ানডে ও ৪ টেস্ট। দীর্ঘ ৭২ দিনের এ সফর শেষ করবে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট দল আগামী ৭ ডিসেম্বর।