১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিকেএসপিতে ২৯ ফুটবলার নিয়ে কোচ লোপেজ

বিকেএসপিতে ২৯ ফুটবলার নিয়ে  কোচ লোপেজ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ একবার করে মোকাবেলা করা হয়ে গেছে। চার প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধেই অবতীর্ণ হয়ে তাদের শক্তিমত্তা, দুর্বলতা কিংবা খেলার কৌশলটা জানা হয়ে গেছে। তবে যার অধীনে খেলে চার প্রতিপক্ষ অস্ট্রেলিয়া, জর্দান, কিরগিজস্তান ও তাজিকিস্তান সম্পর্কে সম্যক ধারণা পেয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল দল, সেই লোডভিক ডি ক্রুইফ অধ্যায় শেষ হয়ে গেছে। বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের দায়িত্ব নিয়েছেন ইতালিয়ান কোচ ফ্যাবিও লোপেজ। এবার তার মিশন দ্বিতীয় দফায় এ চার প্রতিপক্ষের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের জন্য ছক তৈরি করা এবং রণ কৌশল ঠিক করে পরিকল্পনা কাজে লাগানো। সে লক্ষ্যে লোপেজ ইতোমধ্যেই ২৯ জনের প্রাথমিক দল পেয়ে গেছেন। আগামী মাসে কিরগিজদের বিপক্ষে দ্বিতীয় দফায় ২০১৮ রাশিয়া ফুটবল বিশ্বকাপ বাছাইয়ে এশিয়া অঞ্চলের ‘বি’ গ্রুপের বাছাই ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। আর সেজন্য ঈদের আগে ৪১ জনের দল গড়েছিলেন লোপেজ। সেখান থেকে কাটছাঁট করে ২৯ জনের দল গড়া হয়েছে। ১৩ অক্টোবর কিরগিজস্তানের বিশকেকে খেলতে নামার আগেই এখান থেকে চূড়ান্ত দল ঘোষণা করা হবে। সে লক্ষ্যে রবিবার থেকে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (বিকেএসপি) কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরু হয়েছে।

প্রথম থেকেই কঠোর ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন লোপেজ। তিনি আগেই জানিয়েছিলেন জাতীয় দলে অনেক পরিবর্তন আনতে হবে উন্নতির জন্য। তাছাড়া নতুন কোচ কোন একটি দলের দায়িত্ব নিলে স্বাভাবিকভাবেই বেশকিছু পরিবর্তন আসে। খেলার ধরন, কৌশল, প্রতিপক্ষকে মোকাবেলার পরিকল্পনা এবং দল গঠনের প্রক্রিয়া। আর সেজন্য খেলোয়াড়দের শৃঙ্খলা ঠিক রাখার দিকেও মনোযোগী হন কোচেরা। এবারই প্রথম নিজের পছন্দসই একটা দল গঠন করলেন লোপেজ। ঈদের আগে ৪১ সদস্যের একটি প্রাথমিক দল গড়েছিলেন তিনি। আগামী মাসের ১৩ তারিখে কিরগিজস্তানের বিপক্ষে এ্যাওয়ে ম্যাচে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ দল। সেজন্যই প্রাথমিক ওই দল গড়েছিলেন লোপেজ। তবে শনিবার বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) তালিকা আরও ছোট করে ২৯ জনের যে দল ঘোষণা করেছে সেখান থেকে বাদ পড়েছেন মিডফিল্ডার হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস। ঈদের আগে ক্যাম্প শুরু হলেও হেমন্ত অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে ক্যাম্পে যোগ দেননি। এ কারণে মিথ্যাচারের অভিযোগে তাকে ক্যাম্পের বাইরে রাখার সিদ্ধান্ত নেন ইতালিয়ান কোচ লোপেজ। অসুস্থ জানালেও অন্যত্র ভাড়াটে (খেপ) খেলোয়াড় হিসেবে ঢাকার বাইরে (দিনাজপুরে) খেলতে গিয়েছিলেন হেমন্ত। বাফুফে থেকে তাকে শোকজ (কারণ দর্শানোর নোটিস) করা হয়। হেমন্ত সেই শোকজের লিখিত জবাব দিলেও আমলে নেয়নি বাফুফের নির্বাচক কমিটি। তাছাড়া কোচ লোপেজও এক্ষেত্রে কঠোর ভূমিকা নিয়েছেন। শাস্তি স্বরূপ এ মিডফিল্ডারকে ছাড়াই এবার কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরু হয়ে গেল।

এর আগে নিজেদের মাঠে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে কিরগিজস্তানের বিপক্ষে খেলেছে বাংলাদেশ দল। ১১ জুন অনুষ্ঠিত সেই ম্যাচে স্বাগতিক হলেও নিজেদের চেয়ে শক্তিশালী কিরগিজদের কাছে ৩-১ গোলে হেরে গিয়েছিল ক্রুইফের দল। এরপর একেএকে ঘরের মাঠে তাজিকিস্তানের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে পার্থে ৫-০ গোলে হার এবং জর্দানের বিপক্ষে ঢাকায় ৪-০ গোলে হার দেখেছে দল। চার ম্যাচে ১৩ গোল হজম করতে হয়েছে এবং বাংলাদেশ প্রতিপক্ষের জালে দিতে পেরেছে মাত্র দুটি গোল। একটি মাত্র ম্যাচ দেশের বাইরে অর্থাৎ অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে খেলেছে। এবার চ্যালেঞ্জ আরও কঠিন। তিন ম্যাচই খেলতে হবে প্রতিপক্ষের মাটিতে। সেই চ্যালেঞ্জে প্রথম প্রতিপক্ষ কিরগিজরা। এবার দেশটির রাজধানী বিশকেকে পরস্পরের মুখোমুুখি হতে হবে। তাই আগেভাগেই প্রস্তুত হতে শুরু করেছে বাংলাদেশ দল। তাছাড়া নতুন কোচ হিসেবে প্রথম এ পরীক্ষার জন্য ভালভাবে শিষ্যদের বুঝে উঠতে চান লোপেজ। ২৯ জনের সংক্ষিপ্ত প্রাথমিক দল নিয়ে রবিবারই বিকেএসপি গেছেন এ ইতালিয়ান। শুরু হয়েছে কন্ডিশনিং ক্যাম্প। এই ক্যাম্প শেষেই কিরগিজস্তান সফরের চূড়ান্ত দল ঘোষণা করা হবে।

২৯ জনের প্রাথমিক দল ॥ গোলরক্ষক- রাসেল মাহমুদ লিটন, শহিদুল আলম সোহেল, মাজহারুল ইসলাম ও আশরাফুল ইসলাম রানা। ডিফেন্ডার- রায়হান হাসান, তপু বর্মণ, নাসিরুল ইসলাম নাসির, ইয়াসিন খান, আতিকুর রহমান মিশু, ইয়ামিন মুন্না, ওয়ালী ফয়সাল, ফয়সাল মাহমুদ ও রেজাউল করিম। মিডফিল্ডারÑ মোঃ রুমন, জামাল ভূঁইয়া, মামুনুল ইসলাম, সোহেল রানা, মোনায়েম খান রাজু, শাহেদুল আলম শাহেদ ও ইমন মাহমুদ। ফরোয়ার্ডÑ তকলিস আহমেদ, ওয়াহেদ আহমেদ, জাহিদ হোসেন, জাহিদ হাসান এমিলি, আবদুল বাতেন কমল, জুয়েল রানা, আমিনুর রহমান সজীব, সাখাওয়াত হোসেন রনি ও নাবিব নেওয়াজ জীবন।