১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লেভানডোস্কির ভাবনায় জয়ের বিকল্প নেই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গত সপ্তাহেই রবার্ট লেভানডোস্কির ঝড় দেখে ফুটবল বিশ্ব। জার্মান লীগে মাত্র ৯ মিনিটে ৫ গোল করেন তিনি। ওল্ফসবার্গের বিপক্ষে গোলোৎসবের সেই রেশ কাটতে না কাটতেই শুক্রবার মেইঞ্জের বিপক্ষে মুখোমুখি হয় লেভানডোস্কির দল। আর এই ম্যাচেও জোড়া গোল করেন তিনি। এর ফলে দল জিতে ৩-০ গোলের বড় ব্যবধানে। সেই সঙ্গে নতুন এক মাইলফলকও গড়েন ২৭ বছর বয়সী লেভানডোস্কি। জার্মানির বাইরের ফুটবলার হিসেবে বুন্দেসলিগায় দ্রুততম শততম গোল করার অবিস্মরণীয় কীর্তি গড়েন তিনি। এই টুর্নামেন্টে ১৬৮ ম্যাচ খেলে ১০০ গোলের মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলেন তিনি। তারপরও উচ্ছ্বাসের জোয়ারে না ভেসে মাটিতেই পা রাখছেন এই বেয়ার্ন মিউনিখের এই পোলিশ ফুটবলার। বেয়ার্ন মিউনিখের সামনে এখন গুরুত্বপূর্ণ দুটি ম্যাচ। মঙ্গলবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগে বেয়ার্ন আতিথ্য দেবে ডিনামো জাগরেবকে অর জার্মান লীগে তাদেরই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের মোকাবেলা করবে অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে। তাই এই দুটি ম্যাচে জয় ভিন্ন কিছু ভাবছেন না লেভানডোস্কি। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের সামনে এখন গুরুত্বপূর্ণ দুটি ম্যাচ। আমরা এই দুটি ম্যাচই জিততে চাই। তবে সেজন্য পা মাটিতেই রাখতে হবে আমাদের।’ গত সপ্তাহে ওল্ফসবার্গের বিপক্ষে ৩ মিনিট ১৯ সেকেন্ডে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেছিলেন তিনি। যা জার্মানির ইতিহাসে সবচেয়ে দ্রুততম হ্যাটট্রিক। বিরল সেই রেকর্ডের পর লেভানডোস্কি বলেছিলেন, ‘আমি অত্যন্ত আনন্দিত। তবে ৫ গোল দেয়াটা সত্যি অবিশ্বাস্য।’ চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমিফাইনালে ২০১২ সালে ৪ গোল করেছিলেন তিনি। আর এখন পর্যন্ত সেটাই তার ক্যারিয়ার সেরা পারফর্মেন্স। তবে এক ম্যাচে ৫ গোল করাটাকেও কম মানছেন না তিনি, ‘চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমিফাইনালে ৪ গোল করাটা গুরুত্বপূর্ণ ও ক্যারিয়ারের বিশাল অর্জন। কিন্তু ৫ গোলটাকে আমি নিজের আরেকটি সেরা দিন বলেই মনে করি।’ মেইঞ্জের বিপক্ষে জোড়া গোলের পর লেভানডোস্কির বিশ্বাস, নিজের সেরাটা খেলতে পারলে গোল আসবেই। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আপনাকে সবসময়ই বিশ্বাস করতে হবে যে গোল আসবেই। আর মেইঞ্জের জালে বল জড়ানোর পর আমি আরও আনন্দিত। তবে এটা খুব সহজ ছিল না। কেননা তাদের রক্ষণভাগ অনেক ভাল। প্রকৃতপক্ষে এটা অবিশ্বাস্য এক সন্ধ্যা অসাধারণ এক ম্যাচ। জোড়া গোল করে আমি খুবই সন্তুষ্ট।’