২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জেন্ডার সমতা অর্জনে আরও কাজ করার অঙ্গীকার শেখ হাসিনার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জেন্ডার সমতা ও নারীর ক্ষমতায়নের লক্ষ্যে বিভিন্ন পদক্ষেপ এগিয়ে নেয়ার জন্য তার সরকারের দীর্ঘ রাজনীতির অঙ্গীকার ব্যক্ত করে বলেছেন, বাংলাদেশ নারীদের সামাজিক, অর্থনৈতিক ও রাজনীতিক ক্ষমতায়ন এবং মেয়েদের উচ্চশিক্ষার জন্য কাজ চালিয়ে যেতে অঙ্গীকারবদ্ধ।

জাতিসংঘ সদর দফতরে রবিবার জেন্ডার সমতা সংক্রান্ত বিশ্বের নেতৃবৃন্দের উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে বক্তৃতাকালে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ নারীদের জন্য আরও সুযোগ-সুবিধা সৃষ্টি এবং রাজনীতি, ব্যবসা-বাণিজ্য ও সরকারের কর্মকা-ে তাদের প্রবেশাধিকার নিশ্চিত করবে।

ইউএন এনটিটি ফর জেন্ডার ইকুয়ালিটি, এমপাওয়ারমেন্ট অব উইমেন (ইউএন-উইমেন) এবং চীন যৌথভাবে জেন্ডার সমতা ও নারীদের ক্ষমতায়ন : পদক্ষেপের অঙ্গীকার শীর্ষক আলোচনার আয়োজন করে। এতে বিশ্বনেতৃবৃন্দ যোগ দেন। খবর বাসসর।

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুন, মেক্সিকো ও কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট, ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রীসহ ১৭ দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানগণ আলোচনায় অংশ নেন।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ সর্বস্তরের জীবন-জীবিকার ক্ষেত্রে নারীদের অংশগ্রহণের বিষয়ে সর্বাধিক গুরুত্ব দেয়। এ প্রসঙ্গে তিনি নারীদের কল্যাণের লক্ষ্যে তার সরকারের কয়েকটি সফল কর্মসূচীর উল্লেখ করেন।

এসব কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত মেয়েদের জন্য বিনামূল্যে শিক্ষা, ছাত্রীদের জন্য বৃত্তি, বিনামূল্যে সন্তান প্রসবপূর্ব ও পরবর্তী স্বাস্থ্যসেবা, সহজ ঋণ সুবিধা, বৃত্তিমূলক, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রশিক্ষণ। তিনি আরও বলেন, সরকার নারীদের জন্য স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের লক্ষ্যে সারাদেশে কমিউনিটি ক্লিনিকগুলো থেকে বিনামূল্যে ৩২টি ওষুধ দেয়া হচ্ছে।

শেখ হাসিনা বলেন, টেকসই উন্নয়ন এজেন্ডা আমাদের নারী ও মেয়েদের জীবনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনার অনুপ্রেরণা দেয়ার সুযোগ দেবে। এই সুযোগ আমাদের কাজে লাগাতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ নারীদের বিরুদ্ধে সব ধরনের বৈষম্য ও সহিংসতার অবসান ঘটানোর লক্ষ্যে কাজ চালিয়ে যেতে দৃঢ় অঙ্গীকারবদ্ধ। আমরা আমাদের নারী ও মেয়েদের জন্য একটি নিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টি করব। শেখ হাসিনা বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে বাল্যবিবাহ বিমোচনের পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে। আমরা মায়ের স্বাস্থ্য ও পুষ্টির বিষয়ে মনোযোগ অব্যাহত রাখবে। আমরা শিশুদের জন্মলাভের সময় দক্ষ ধাত্রীদের সহায়তার হার বাড়ানোর জন্য কাজ করব।

তিনি নারী ও মেয়েদের জন্য একটি উন্নত বিশ্ব গড়ে তোলা এবং সকল ক্ষেত্রে জেন্ডার সমতা অর্জনের লক্ষ্যে অঙ্গীকার গ্রহণের জন্য বিশ্ব নেতৃবৃন্দের প্রতি আহ্বান জানান।

সৌর বিদ্যুত উৎপাদনে ৪৩০ কোটি ডলার বিনিয়োগের প্রস্তাব ॥ সৌর বিদ্যুত উৎপাদনে বিশ্বের বৃহত্তম ও সবচেয়ে সফল কোম্পানিগুলোর অন্যতম স্কাইপাওয়ার গ্লোবাল বাংলাদেশে সৌর বিদ্যুত খাতে ৪৩০ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করবে।

গত শুক্রবার হোটেল ওয়াল্ডর্ফ এস্টোরিয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বিজনেস কাউন্সিল ফর ইন্টারন্যাশনাল আন্ডারস্ট্যানডিং (বিসিআইইউ)-এর এক গোলটেবিল আলোচনাকালে কানাডা ভিত্তিক বহুজাতিক এই কোম্পানির প্রেসিডেন্ট ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কেরি এডলার একথা ঘোষণা করেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম জানান, এ কোম্পানি আগামী চার বছরের মধ্যে বাংলাদেশে ২০০০ মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুত উৎপাদনে সক্ষম একটি প্লান্ট স্থাপনে বিনিয়োগ করতে সম্মত হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর জন্মস্থান টুঙ্গিপাড়ায় কোম্পানির কার্যালয় স্থাপন করা হবে। কোম্পানি ৪২ হাজার লোকের কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করবে। এছাড়া এই কোম্পানি বাংলাদেশের ১৫ লাখ বাড়িতে ব্যবহারের জন্য বাতি দান করবে।

সভায় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশে বিনিয়োগ করার জন্য বিভিন্ন ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানকে আমন্ত্রণ জানিয়ে বাংলাদেশের বিকাশমান বিনিয়োগ সম্ভাবনাগুলোর কথা তুলে ধরেন।

তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে বাংলাদেশের পণ্যের শুল্ক ও কোটামুক্ত প্রবেশাধিকার পেতে সমর্থন দেয়ার জন্য বিজনেস কাউন্সিল ফর ইন্টারন্যাশনাল আন্ডারস্ট্যানডিংয়ের (বিসিআইইউ) প্রতি আহ্বান জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, তার সরকার জনগণের খাদ্য নিরাপত্তা ও মৌলিক চাহিদা নিশ্চিত করেছে। তিনি আরও বলেন, ‘আমরা এখন অবকাঠামো উন্নয়ন এবং কিভাবে কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধি করা যায় তাতে গুরুত্ব দিচ্ছি।’

তিনি বলেন, উন্নয়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশের প্রতিটি খাতে এখন দেশী-বিদেশী উৎস থেকে বিনিয়োগের প্রয়োজন এবং বিশেষ করে আইসিটি, গ্যাস ও বিদ্যুত খাতকে অগ্রাধিকার দিতে হবে।

তিনি বলেন, তাই বাংলাদেশ বিদেশী বিনিয়োগের জন্য দরজা উন্মুক্ত রেখেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, জাহাজ নির্মাণ, ওষুধ, পাট ও পাটজাত পণ্য উৎপাদন, হালকা প্রকৌশল ও সাগর সম্পদ অন্বেষণ খাতসমূহে বাংলাদেশে বিনিয়োগের বিরাট সুযোগ রয়েছে। ‘বিরোধ নিষ্পত্তির পরে ভারত ও মিয়ানমারের সঙ্গে সমুদ্রসীমা নির্ধারণ হওয়ায় সরকার নীল অর্থনীতিতে গুরুত্ব দিচ্ছে।’

শেখ হাসিনা বলেন, তার সরকার ব্যবসা করছে না, বরং প্রকৃত উদ্যোক্তা ও কোম্পানিগুলোকে ব্যবসা করার ভাল সুযোগ করে দিতে কাজ করে যাচ্ছে। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম আলোচনায় অংশ নেন। বৈঠকে বিশ্বের ২৭টি বৃহৎ কোম্পানির প্রধান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তাগণ এতে উপস্থিত ছিলেন।

এ্যাড

মুন্সীগঞ্জে বাইকচালক নিহত, আহত ২ ॥ শ্রীনগর উপজেলার রাঢ়ীখালে রবিবার বাইক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে চালক মোঃ উজ্জ্বল (৩২) নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে মোটরবাইকের দুই আরোহী। আহতদের চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত উজ্জ্বলের বাড়ি শ্রীনগর উপজেলার কুসুরীপাড়া গ্রামে।