২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নীলফামারীতে অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী ধর্ষন॥ ধর্ষক আটক

স্টাফরির্পোটার, নীলফামারী॥ অষ্টম শ্রেনীর এক মাদ্রাসা ছাত্রী কে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ধর্ষক করে আটক করে থানায় দিয়েছে এলাকাবাসী। নীলফামারীর কিশোরীগঞ্জ উপজেলার রনচন্ডি ইউনিয়নের উত্তরপাড়া গ্রামের এই ঘটনায় আজ সোমবার সকালে ছাত্রীটির পিতা এমদাদুল হক বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। পুলিশ আটক ধর্ষক একই গ্রামের দবির উদ্দিনের পুত্র বাবু মিয়া (২৫) কে দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলাহাজতে পাঠিয়েছে।

মামলার সুত্র মতে ছাত্রীটি ও ধর্ষক একই গ্রামের বাসিন্দা। গত শনিবার(২৬ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বাবু মিয়া ওই ছাত্রীকে জোড়পূর্বক অপহরন করে অজ্ঞাতস্থানে দুই দিন ধরে আটক রেখে ধর্ষন করে। ছাত্রীটির পিতা এলাকার ইউপি সদস্য তোজ্জাম্মেল হক ও এলাকাবাসীর সহযোগীতায় মঙ্গলবার ভোরে মেয়েটিকে উদ্ধার ও ধর্ষক বাবু মিয়াকে আটক করে কিশোরীগঞ্জ থানায় নিয়ে এসে মামলা দায়ের করে।

এদিকে ধর্ষনের অভিযোগে আটক বাবু মিয়া থানায় সাংবাদিকদের জানায় ঘটনাটি এলাকার ইউপি সদস্য তোজাম্মেল হক পরিকল্পিতভাবে ঘটনাটি ঘটিয়েছে। আমি মেয়েটিকে বিয়ে করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু ইউপি সদস্য এ জন্য তার কাছে ৩০ হাজার টাকা দাবি করে । আমি তাকে ১০ হাজার টাকা দিয়েছি। সে আরো ২০ হাজার টাকা না পেয়ে আমাকে থানা পুলিশের কাছে তুলে দিয়েছে।

রনচন্ডি ইউনিয়নের এক নম্বর ওয়াডের ইউপি সদস্য তোজাম্মেল হক তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ অস্বীকার করেন।কিশোরীগঞ্জ থানার ওসি মোস্তাফিজার রহমান ঘটনাটি বিষয় নিশ্চিত করে বলেন ছাত্রীর পিতা বাদী হয়ে মামলা ( নম্বর ৬ –ধারা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আইন ৯/১(৭) দায়ের করেছে। আসামীকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।