২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাদারীপুরে সংখ্যালঘুর বাড়িতে হামলা ॥ মামলা নেয়নি পুলিশ

মাদারীপুরে সংখ্যালঘুর বাড়িতে হামলা ॥ মামলা নেয়নি পুলিশ

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর॥ মাদারীপুর শহরে কার্তিক চন্দ্র রায় নামে এক সংখ্যালঘুর বাড়িতে সন্ত্রাসী হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় দুই দিনেও মামলা নেয়নি পুলিশ। এ ঘটনায় ক্ষোভ ও দুঃখ প্রকাশ করেছে নির্যাতিত পরিবার।

সোমবার নির্যাতিত পরিবারের লিখিত অভিযোগে জানা গেছে, মাদারীপুর শহরের হামিদ আখন্দ সড়কের কালিবাড়ি এলাকার কার্তিক চন্দ্র রায়ের এক মেয়েকে রাস্তা-ঘাটে উত্যাক্ত করতো শহরের কতিপয় বখাটে সন্ত্রাসী। এ ঘটনার প্রতিবাদ করে ওই মেয়ে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বখাটেরা শনিবার রাত ৯টার দিকে তাদের বাড়িতে গিয়ে ওই মেয়েকে আবারও উত্যাক্ত করে। এ সময় প্রতিবাদ করে পরিবারের লোকজন।

বখাটেরা ফিরে গিয়ে অন্তর খন্দকার ও নোবেল বেপারীর নেতৃত্বে ২০/২৫ জন যুবক সংঘবদ্ধ হয়ে এসে ওই দিন রাত ১১টার দিকে কার্তিক চন্দ্র রায়ের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট করে। বাধা দিতে গেলে হামলাকারীদের লাঠির আঘাতে জাতীয় হ্যান্ডবল দলের খেলোয়ার শিলা রায় ও তাদের এক আত্মীয়া গীতা দাস আহত হয়। হামলার সময় নগদসহ ১ লক্ষাধিক টাকার সম্পদ লুটপাট ও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে পরিবারের দাবী। ঘটনার পরে রাত ২টার দিকে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার মাদারীপুর মডেল থানায় মামলা করতে গেলে রাত ১২টার পরে মামলা নেওয়া যাবে না বলে তাদের ফিরিয়ে দেয়। রবিবার পূনরায় মামলা করতে গেলে তাদের অভিযোগপত্র রেখে পুলিশ তদন্তে যাওয়ার কথা বলে আবারও ফিরিয়ে দেয়। সোমবার দুপুরে মাদারীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। সংবাদ লেখা পর্যন্ত মামলাটি নথীভূক্ত করা হয়নি।

এ ব্যাপারে মাদারীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিয়াউল মোর্শেদকে মোবাইল করা হলে তিনি মোবাইল রিসিভ না করায় তার বক্তব্য দেওয়া সম্ভব হলো না।