২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মানি লন্ডারিং-সন্ত্রাসে অর্থায়ন প্রতিরোধে বিশেষ নির্দেশনা দিয়েছে বিবি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসী অর্থায়ন বিষয়ে কঠোর অবস্থান নিয়েছে বাংলাদেশে ব্যাংক। এ বিষয়ে মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠান কর্তৃক মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন ২০১২ এবং সন্ত্রাসবিরোধী আইন ২০০৯ পালনে বিশেষ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। রবিবার পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব নির্দেশনার কথা তুলে ধরা হয়েছে।

এতে বলা হযেছে, প্রত্যেক মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদ/ মালিক/ স্বত্বাধিকারী কর্তৃক অনুমোদিত মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন প্রতিরোধ বিষয়ক নিজস্ব নীতিমালা এবং কর্মসূচী থাকতে হবে। প্রত্যেক মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠান একজন উর্ধতন কর্মকর্তাকে মানি ল্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন প্রতিরোধ বিষয়ক পরিপালন কর্মকর্তা হিসেবে মনোনীত করবে। ওই কর্মকর্তার নাম, পদবি, যোগাযোগের ঠিকানা, ই-মেইল, টেলিফোন ও ফ্যাক্স নম্বর বিএফআইইউ বরাবরে সরবরাহ করবে। তিনি মানি লন্ডারিং ও সন্ত্রাসে অর্থায়ন বিষয়ে বিদ্যমান আইন, বিধিমালা এবং বিএফআইইউ এর নির্দেশনা পরিপালন নিশ্চিত করবেন এবং গ্রাহকদের সন্দেহজনক লেনদেন/কার্যাবলী বিষয়ক প্রতিবেদন বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিটে পাঠাবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনায় আরও বলা হয়েছে, মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠান তার ব্যবসার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকল স্থানীয় মুদ্রা ও বৈদেশিক মুদ্রার স্থিতি দৈনিক ভিত্তিতে রেজিস্টারে লিবিপদ্ধ রাখবে। ওই রেজিস্টারের হিসেবের বাইরে কোন বৈদেশিক মুদ্রা প্রতিষ্ঠানে সংরক্ষণ করবে না। লেনদেনের উদ্দেশ্যে আগত গ্রাহক ছাড়া অন্য কোন ব্যক্তি মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরে বৈদেশিক মুদ্রা সহকারে অবস্থান করবে না। বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদিত ব্যবসা কেন্দ্র ছাড়া অন্য কোথাও মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠান বৈদেশিক মুদ্রা ক্রয়-বিক্রয় করবে না। সিটি কর্পোরেশনে অবস্থিত প্রত্যেক মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠান তার ব্যবসা কেন্দ্রে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা স্থাপন করবে এবং রেকর্ডকৃত ভিডিও ন্যূনতম সাত দিন সংরক্ষণ করবে।

মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠান সেবা গ্রহণকারী গ্রাহকদের পরিচিতির সঠিক ও পূর্ণাঙ্গ তথ্য এবং সংশ্লিষ্ট দলিলাদি নির্দিষ্ট ফরমে সংগ্রহ করবে। প্রতিটি মানি চেঞ্জার প্রতিষ্ঠান জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বিভিন্ন রেজুলেশনের আওতায় সন্ত্রাস, সন্ত্রাসী কার্যে অর্থায়ন ও ব্যাপক ধ্বংসাত্মক অস্ত্র বিস্তারে অর্থায়নে জড়িত সন্দেহে তালিকাভুক্ত কোন ব্যক্তি বা সত্তা এবং বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক তালিকাভুক্ত কোন ব্যক্তি বা নিষিদ্ধ ঘোষিত সত্তার সঙ্গে কোন প্রকার লেনদেন করবে না। প্রতিটি মানি চেঞ্জারের কর্মকর্তারা গ্রাহকদের তথ্যাদি সংরক্ষণ করবেন।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া