২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাতক্ষীরায় ক্লিনিকে আরও এক মায়ের মৃত্যু

  • ভুল চিকিৎসার অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, সাতক্ষীরা ॥ একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় প্রসূতি মায়ের মৃত্যুর রেশ কাটতে না কাটতেই এবার সদর হাসপাতালের সামনে অবস্থিত সুন্দরবন ক্লিনিকে প্রাণ গেল নূরজাহান খাতুন (৩৭) নামের আরও এক রোগীর। সিজারের মাধ্যমে তার একটি কন্যাসন্তান জন্ম হলেও তিনদিনেও সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকরা নিহতের রক্তক্ষরণ বন্ধ করতে না পারায় অকালে প্রাণ দিতে হলো এই গৃহবধূকে। নূরজাহান খুলনার পাইকগাছা উপজেলার হরিদাশকাটি গ্রামের আলমুন হোসেনের স্ত্রী। এদিকে গত ১৭ সেপ্টেম্বর একতা হাসপাতালে সুমনা নামের এক রোগীর ভুল চিকিৎসায় মৃত্যুর ঘটনায় সদর থানায় ডা দেবদুলাল সরকারসহ ৩ ডাক্তার ও হাসপাতাল মালিকসহ ৮ জনের নামে হত্যা মামলা দায়ের করার ঘটনায় মঙ্গলবার থেকে চিকিৎসকরা ধর্মঘট শুরু করলেও একদিন পরেই ধর্মঘট প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ মামলায় পুলিশ ৩ জনকে গ্রেফতার করলেও ডাঃ দেবদুলালসহ ৩ ডাক্তার বর্তমানে পলাতক রয়েছে। এদিকে গত ২১ সেপ্টেম্বর সুন্দরবন ক্লিনিকে নূরজাহানের একটি কন্যাসন্তান হয়। ডাঃ শরিফুল ইসলাম ও ডাঃ আরিফুজ্জামান ওই রোগীর সিজার করেন। নিহতের স্বামী আলমুন হোসেন অভিযোগ করে জানান, সুন্দরবন ক্লিনিকের ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় তার স্ত্রী নূরজাহানের মৃত্যু হয়েছে। সিজার হওয়ার পর রোগীর রক্তক্ষরণ বন্ধ হয়নি। রোগীর শরীরের ভেতরে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারনেই রক্তশূন্য হয়েই তার স্ত্রী’র মৃত্যু হয়েছে বলে খুলনার ডাক্তাররা তাকে জানিয়েছেন। বুধবার রাতে অঙ্গান অবস্থায় ডাঃ শরিফুল ইসলাম, ডাঃ আরিফুজ্জামান ও সুন্দরবন ক্লিনিকের ম্যানেজার আবুল খায়ের তড়িঘড়ি করে একটি এ্যাম্বুলেন্স ডেকে রোগীকে খুলনায় পাঠিয়ে দেয়।

বিনোদনের জন্য লঞ্চ

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাগুরা, ২৮ সেপ্টেম্বর ॥ ঈদের পর নবগঙ্গা নদী ও চরের কাশবন, গড়াই সেতুসহ বিভিন্ন এলাকায় বিনোদন পিপাসুদের সমাগম ঘটছে। নবগঙ্গা নদীতে গাংচিল লঞ্চে করে প্রাকৃতিক দৃশ্য উপভোগ করছেন অনেকে। পবিত্র ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষে নবগঙ্গা নদীতে গাংচিল নামে একটি দ্বিতল লঞ্চ সার্ভিস চালু করা হয়েছে। প্রতিদিন এক ঘণ্টা পর পর লঞ্চটি চলছে। ঈদ আনন্দ উপভোগের জন্য অনেকে পরিবার-পরিজন নিয়ে আনন্দ উপভোগ করছেন।

শিক্ষার্থী সংবর্ধনা

নিজস্ব সংবাদদাতা, কচুয়া, চাঁদপুর, ২৮ সেপ্টেম্বর ॥ কচুয়ায় কৃতী শিক্ষার্থী সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। সোমবার ঢাকার স্টুডেন্টস্ এ্যাসোসিয়েশন অব ঢাকা ইউনিভার্সিটির উদ্যোগে উপজেলার কোর্ট মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ২০১৫ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্ত উপজেলার শতাধিক ছাত্রছাত্রীকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। প্রধান অতিথি সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর কৃতী শিক্ষার্থীদের ক্রেস্ট প্রদান করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন শাহাজাহান শিশির, ড. শাহ এমরান প্রমুখ।