২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই ঘন্টায়    
ADS

ঈদের টেলিফিল্ম ‘রতনে রতন চিনে’

সংস্কৃতি ডেস্ক ॥ এবারের ঈদ-উল-আযহায় একুশে টেলিভিশনের ছয় দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য ঈদ অনুষ্ঠানমালায় আজ প্রচার হবে বিশেষ টেলিফিল্ম ‘রতনে রতন চিনে’। টেলিফিল্মটি রচনা করেছেন তরুণ নাট্যকার আকাশ রঞ্জন। মীর সাব্বিরের পরিচালনায় ঈদের এই বিশেষ টেলিফিল্মের বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন এটিএম শামসুজ্জামান, মীর সাব্বির, তারিন, সোহাগ কাজী, আকাশ রঞ্জন সহ আরও অনেকে। টেলিফিল্মটি আজ মঙ্গলবার বিকাল ৩-৩০ মিনিটে একুশে টেলিভিশনে প্রচার হবে। মানুষ তার অর্জিত অর্থ সেভ করার জন্য যেমন কৌশল পাল্টিয়েছে ঠিক তেমনি ধান্দাবাজরাও তাদের কৌশল পাল্টে অভিনব কায়দায় ধান্দা করেই যাচ্ছে। আর অনেকে আছে ধান্দাবাজদের চেয়েও বড় প্রতারক, যারা মানুষের বিশ্বাসকে পূজি করে দিনের পর দিন আপজনকে ঠকিয়ে ঠক খাচ্ছে অন্যের কাছে। এমন গল্প নিয়েই সাজানো হয়েছে টেলিফিল্ম ‘রতনে রতন চিনে’। এ টেলিফিল্মের কাহিনীতে দেখা যাবে ছাত্তার নামে এক ষাট বছরের বৃদ্ধ, তার সহায় সম্বলহীন নাতনি লাইলীকে নিয়ে ঢাকায় অবস্থান করে। সম্পর্কের সূত্রে তারা নানা নাতনি না হলেও জীবিকার প্রয়োজনে তারা এই সম্পর্কে জড়িয়েছে। মজনু নামের এক পকেটমারের সঙ্গে কাজের সূত্রে নানা ছাত্তারের পরিচয় হয়। সেই সূত্র ধরে লাইলীর সঙ্গে মজনুর সখ্য গড়ে ওঠে। মজনুর কাছে উন্মোচিত হয় ছাত্তার ও লাইলী তার চেয়েও বড় প্রতারক। তিনজনে মিলে গড়ে তোলে থ্রিষ্টার প্রতারক চক্র। এই গল্পের স্বার্থকতা এখানেই এক রতন অন্য রতনকে চিনে ফেলেছে। কিন্তু আসলেই কি তারা একজন অন্যজনকে চিনতে পেরেছে? এমন রহস্যজনক উত্তেজনার মধ্যে রতনে চিনে গল্পটি এগিয়ে যায়। নানা হাস্যরস এবং বৈচিত্র্যময় ঘটনার জন্য দর্শককে অপেক্ষা করতে হবে প্রতারক চক্রের শেষ পরিণতি দেখার জন্য। টেলিফিল্ম প্রসঙ্গে মির সাব্বির বলেন, এই টেলিফিল্মটির গল্প অনেক চমৎকার। আমি চেষ্টা করেছি দর্শদের ভাললাগার মতো বিশেষ টেলিফিল্ম ‘রতনে রতন চিনে’ ঈদ উপহার দিতে। আশা করি দর্শকরা অনেক আনন্দ পাবে।