২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জঙ্গীবাদ নিয়ে প্রপাগান্ডায় বহির্বিশ্বে আস্থাহীনতা সৃষ্টি হয়েছে ॥ রিপন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সরকারের মন্ত্রী ও নেতকর্মীদের জঙ্গীবাদ নিয়ে প্রোপাগান্ডা চালানোর কারণে বহির্বিশ্বে বাংলাদেশ সম্পর্কে আস্থাহীনতা সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। তাদের এরকম প্রোপাগান্ডায় প্রভাবিত হয়ে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল বাংলাদেশ সফর স্থগিত করেছে। এভাবে জঙ্গীবাদ নিয়ে প্রোপাগান্ডা চলতে থাকলে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে উল্লেখ করেন দলের মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন।

সোমবার পল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক প্রেস বিফ্রিংয়ে তিনি বলেন, অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সম্পর্কে নিরাপত্তহীনতার আশঙ্কা একেবারেই ভিত্তিহীন। সরকারের কর্মকা-ের কারণে অস্ট্রেলিয়া এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তিনি বলেন, অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সম্পর্কে নিরাপত্তাহীনতার আশঙ্কা একেবারেই ভিত্তিহীন। দেশে জঙ্গীবাদের কোন অস্তিত্ব নেই। এ বিষয়ে সরকারের স্বরাষ্ট্র ও বাণিজ্যমন্ত্রী বাংলাদেশে জঙ্গীবাদের কোন অস্তিত্ব নেই বলে যে পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন বিএনপি তার সঙ্গে একমত। তবে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুসহ সরকারের কয়েকজন মন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন দলের নেতারা যে এত দিন দেশে জঙ্গীবাদের জিগির তুলেছিলেন, তার ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশ সম্পর্কে আস্থাহীনতা সৃষ্টি হয়েছে।

সরকারকে সতর্ক করে দিয়ে বিএনপির এই নেতা বলেন, সরকারের কর্মকা-ে বাংলাদেশ সম্পর্কে যে নেতিবাচক ধারণার সৃষ্টি হয়েছে এবং এর সুদূরপ্রসারী প্রভাব সম্পর্কে সরকার সচেতন থাকবে এবং এর বিপরীতে ইতিবাচক ধারণা সৃষ্টিতে যথোপযুক্ত পদক্ষেপ নেবে। নিরাপত্তা নিয়ে কেবল বিদেশীদের নয় দেশের মানুষকেও আশ্বস্ত করবে সরকার।

অস্ট্রেলীয় সরকারের বাংলাদেশ বিষয়ক এই পর্যবেক্ষণের কারণে ধর্মীয় সহনশীল রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশের জন্য কিছু চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার প্রশ্ন উঠে এসেছে। সে কারণে অবিলম্বে এ ধরনের নেতিবাচক ধারণার বাইরে বাংলাদেশকে নিয়ে এসে একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হিসেবে নতুন করে ব্র্যান্ডিং করা দরকার। এজন্য সরকার ও বিরোধী দলগুলোকে একযোগে কাজ করতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে পবিত্র হজ পালনকালে মিনায় পদদলিত হয়ে নিহত হাজীদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করা হয়। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ইনাম আহমেদ চৌধুরী, দলের ভাইস চেয়ারম্যান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, কেন্দ্রীয় নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব, সানাউল্লাহ মিয়া, আবদুস সালাম আজাদ প্রমুখ।