২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সান্তাহারে নাবালিকা ভাগ্নিকে নিয়ে মামা উধাও

নিজস্ব সংবাদদাতা, সান্তাহার ॥ বগুড়ার সান্তাহার পৌর এলাকার দক্ষিন মালশন মহল্লা থেকে নাবালিকা ভাগ্নিকে নিয়ে মামা উধাও হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এনিয়ে ওই মহল্লার সমাজের সমাজপতিরা পক্ষে-বিপক্ষে অবস্থান নেয়ায় তাদের মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করছে।

জানা গেছে, ওই মহল্লার বাবু মোল্লার মেয়ে সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী তার বড়বাবা বেলাল মোল্লার শ্যালক শহিদুল ইসলামের সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। ঘটনা জানার পর ওই মহল্লার সমাজপতিরা বেলালের শ্যালককে ওই বাড়িতে থাকা ও আসা নিষিদ্ধ করে। কিন্তু স্কুল ও কোচিং সেন্টারে যাওয়ার নামে ওই ছাত্রী শহিদুলের সাথে সম্পর্ক বজায় রেখে চলে।

ওই মহল্লাবাসিরা জানায়, প্রায় দুই মাস পুর্বে পাশের ছাতনি গ্রামের ধনকুবের সান্তাহার মিলন প্লাজার মালিক মিলন অভিভাবক সেজে তাদের কোর্টম্যারেজ করায়। এর এক পর্যায়ে সোমবার বিকালে শহিদুল ওই ছাত্রীকে নিয়ে পালিয়ে যায়। ওই মহল্লার সামজপতি শহিদ মোল্লাসহ অনেকে বলেন, ওরা পালিয়ে গিয়ে প্রথমে মিলনের বাড়িতে আশ্রয় নেয় এবং সেখানে মৌলানা ডেকে তাদের বিয়ে করিয়ে দেয়। ঘটনা জানাজানি হবার পর রাতেই তাদের অন্যত্র সরিয়ে দিয়েছে। এদিকে, ওই ছাত্রীর বাবা বাবু মোল্লা সোমবার রাতে তার নাবালিকা মেয়েকে অপহরনের মামলা করবেন বলে সমাজপতিদের জানালেও সকালে সে রহস্যজনক কারনে মামলা করতে অস্বিকার করে বলেন, ওই কুলুঙ্গার মেয়েকে আমি আর কোন দিন মেয়ে বলে পরিচয় দিব না এবং মেনে নেব না জন্য মামলার ঝামেলায় জড়াতে চাইনা।

নির্বাচিত সংবাদ