১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুঁজিবাজারে সূচক কমলেও লেনদেন বেড়েছে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ঈদের পর দ্বিতীয় কার্যদিবসে সূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে পুঁজিবাজারে। মঙ্গলবার দিনভর পুঁজিবাজারে সূচকের পতনে লেনদেন হয়েছে। দিনশেষে দুই স্টক এক্সচেঞ্জেই সব ধরনের সূচকের পতন হয়েছে। তবে লেনদেন কমলেও উভয় পুঁজিবাজারেই আগের দিনের তুলনায় বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ বাড়ার কারণে লেনদেন বেড়েছে।

সকালে নেতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে প্রধান বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৪৩৪ কোটি ৮৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। আগের দিন এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ৩৯৫ কোটি ৩৩ লাখ টাকার শেয়ার। অর্থাৎ লেনদেন বেড়েছে ৩৯ কোটি ৫৫ লাখ টাকা বা ১০ শতাংশ।

এদিকে শুরু থেকেই দিনটিতে বিনিয়োগকারীদের মুনাফা তোলার প্রবণতা দেখা দেয়। দিনশেষেও যা অব্যাহত ছিল। তবে চাহিদার শীর্ষে ছিল লভ্যাংশ ঘোষণা করতে যাওয়া কোম্পানিগুলো। বিনিয়োগকারীদের মুনাফা তোলার চাপে ডিএসই প্রধান মূল্য সূচক ডিএসই এক্স ১৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৮৫৩ পয়েন্টে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ১৮৬ পয়েন্টে। আর ডিএস৩০ সূচক ৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৮৫৪ পয়েন্টে।

এদিন ডিএসইতে মোট লেনদেনে অংশ নিয়েছে ৩১৯টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১১টি কোম্পানির। আর দর কমেছে ১৭৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টির।

এছাড়া ডিএসইতে টাকার অঙ্কে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে ফার কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের শেয়ার। এরপরে রয়েছে - এসিআই, স্কয়ার ফার্মা, ইসলামী ব্যাংক, সাইফ পাওয়ারটেক, বিএসআরএম স্টিলস লিমিটেড, গ্রামীণফোন, সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট, আইডিএলসি ফিন্যান্স লি: এবং এ্যাপোলো ইস্পাত।

অপরদিকে মঙ্গলবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২৭ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ৪১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১৪ হাজার ৮৬৫ পয়েন্টে। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৪৭টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৮টির, কমেছে ১২২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির।