২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র যৌথ সমুদ্র মহড়া শুরু হচ্ছে আজ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর যৌথ অংশগ্রহণে সমুদ্র মহড়া ‘কারাত-২০১৫’ শুরু হচ্ছে আজ। দুই দেশের এই যৌথ মহড়া দুটি পর্যায়ে অনুষ্ঠিত হবে। এই মহড়া চলবে ৪ অক্টোবর পর্যন্ত। দুই দেশের যুদ্ধ জাহাজসমূহের অংশগ্রহণে বঙ্গোপসাগরে সমুদ্র মহড়া অনুষ্ঠিত হবে।

যৌথ মহড়া উপলক্ষে মঙ্গলবার ঢাকার বনানী নৌসদর দফতরে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর কমান্ডার লজিস্টিক গ্রুপ ওয়েস্টার্ন প্যাসেফিক এ্যান্ড কমান্ডার টাস্কফোর্স-৭৩ রিয়ার এডমিরাল চার্লস উইলিয়ামস যৌথ মহড়া সম্পর্কে বলেন, দুই দেশের মধ্যে অনুষ্ঠিত এই মহড়া দুই দেশই লাভবান হবে। এর আগে যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ নৌবাহিনীর মধ্যে চারবার যৌথ মহড়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবার নিয়ে পঞ্চমবারের মতো মহড়ায় অংশ নিচ্ছে দুই দেশ। প্রতিবছরই দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের উন্নয়ন ঘটেছে। সমুদ্র তীরবর্তী জাতি হিসেবে আমাদের দুই দেশের সংস্কৃতিও একই। আমরা সমুদ্রে যাই। আমাদের সমুদ্রসীমার নিরাপত্তার জন্য আমাদের অনেক চ্যালেঞ্জ রয়েছে। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হলে আমাদের দক্ষ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। এ জন্য প্রতিবন্ধকতাগুলো দূর করতে প্রতিশ্রুতিশীল সম্পর্কের প্রয়োজন রয়েছে। এই কারাত অনুশীলনের মাধ্যমে আমরা সেই সক্ষমতা অর্জন করতে পারব। এবারই প্রথম সমুদ্র তীরবর্তী যুদ্ধজাহাজে মহড়া অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর আগে যে চারবার যৌথ মহড়া অনুষ্ঠিত হয়েছে, সেই সময় এই মহড়াটি ছিল না। বাংলাদেশের সমুদ্রজয় ও যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধজাহাজ কাটার মিলে ভাল প্রশিক্ষণ হবে বলে রিয়ার এডমিরাল চার্লস উইলিয়ামস আশা প্রকাশ করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনের আগে তিনি নৌসদরে নৌবাহিনী প্রধান ভাইস এডমিরাল এম ফরিদ হাবিবের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত করেন।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আজ থেকে শুরু হওয়া পাঁচ দিনব্যাপী এই যৌথ মহড়ায় বিভিন্ন নৌকৌশল, সমুদ্রে অনুসন্ধান ও উদ্ধার অভিযান, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, জরুরী চিকিৎসা সেবা প্রদান, সমর আইনের ব্যবহার এবং মেরিটাইম পেট্রোল এয়ারক্রাফট ও হেলিকপ্টার পরিচালনার উপর বিশেষ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হবে। এই প্রশিক্ষণে যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ ইউএসএস ফোর্ট ওয়ার্থ ইউএসএনএস সেফগার্ড, মেরিটাইম হেলিকপ্টার এমএইচ-৬০ আর ও মেরিটাইম পেট্রোল এয়ারক্রাফট পি-৩ সি অংশগ্রহণ করবে। অন্যদিকে বাংলাদেশ নৌবাহিনী জাহাজ বঙ্গবন্ধু, সমুদ্র জয়, আবু বকর, বিজয়, দুর্জয়, ধলেশ্বরী, শাহ জালাল, বিএনটি খাদেম, বিশেষায়িত ফোর্স সোয়াডস্ এবং মেরিটাইম পেট্রোল এয়ারক্রাফ্ট (এমপিএ) অংশগ্রহণ করবে। যৌথ এই মহড়া শেষ হবে আগামী ৪ অক্টোবর।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, যৌথ এ মহড়ায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশ নৌবাহিনী সদস্যদের পেশাগত জ্ঞান ও দক্ষতা বৃদ্ধির পাশাপাশি দুই দেশের নৌবাহিনীর মাঝে পারস্পরিক সম্পর্ক ও সহযোগিতার ক্ষেত্র বৃদ্ধি পাবে। উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনী নিয়মিত মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ব্রুনাই, কম্বোডিয়া, ফিলিপাইন, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুরসহ দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন দেশের সঙ্গে এ ধরনের সমুদ্র মহড়া করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় যুক্তরাষ্ট্র নৌবাহিনী ২০১১ সাল থেকে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর সঙ্গেও সমুদ্র মহড়ায় অংশ নিচ্ছে।