২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গৌরবময় ইতিহাসের হাতছানি রোনাল্ডোর

গৌরবময় ইতিহাসের হাতছানি রোনাল্ডোর
  • উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফুটবল ;###;আজ রাতে মাঠে নামছে রিয়াল মাদ্রিদ ;###;প্যারিস সেইন্ট-জার্মেইন ;###;ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ;###;এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ, জুভেন্টাস ও ম্যানচেস্টার সিটি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গৌরবময় রেকর্ডের সন্নিকটে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। তিনদিনের ব্যবধানে দুই ম্যাচে আট গোল করে কয়েকটি রেকর্ড গড়েন বর্তমান ফিফা সেরা ফুটবলার। পৌঁছে যান আরও কয়েকটি রেকর্ডের দোরগোড়ায়। কিন্তু স্প্যানিশ লা লিগায় টানা তিন ম্যাচে গোলবঞ্চিত থেকে অপেক্ষা বেড়েছে সি আর সেভেনের।

অপেক্ষার প্রহর শেষ করার লক্ষ্যে আরও একবার মাঠে নামার অপেক্ষায় রোনাল্ডো। আজ রাতে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফুটবলে এক গোল করতে পারলেই পেশাদার ফুটবল ক্যারিয়ারে ৫০০ গোলের অনন্য মাইলফলক স্পর্শ করবেন পর্তুগীজ তারকা। এই মিশনে ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদরে প্রতিপক্ষ সুইডিশ ক্লাব মালমো। গ্রুপের আরেক ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে ইউক্রেনের শাখতার ডোনেস্ক ও ফ্রান্সের প্যারিস সেইন্ট-জার্মেইন। নিজেদের প্রথম ম্যাচে শাখতারকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দেয় রিয়াল। ওই ম্যাচে রেকর্ড গড়া হ্যাটট্রিক করেছিলেন রোনাল্ডো।

এক মৌসুম পর ইউরোপ সেরার লড়াইয়ে ফেরা ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের মিশন শুরু হয়েছে পিএসভি আইন্দহোভেনর কাছে ২-১ গোলে হার দিয়ে। আজ প্রথম জয়ের লক্ষ্যে ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে ওল্ডট্রাফোর্ডে তাদের প্রতিপক্ষ জার্মান ক্লাব উলফলবার্গ। গ্রুপের আরেক ম্যাচে লড়বে সিএসকেএ মস্কো ও পিএসভি আইন্দহোভেন। ‘সি’ গ্রুপে স্প্যানিশ ক্লাব এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের প্রতিপক্ষ পর্তুগালের বেনফিকা। ‘ডি’ গ্রুপের দুই ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে বরুসিয়া মনশেনগ্লাডব্যাচ-ম্যানচেস্টার সিটি ও জুভেন্টাস-সেভিয়া।

ছয় বছর আগে যোগ দিয়ে এরই মধ্যে স্প্যানিশ লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদের পক্ষে সবচেয়ে বেশি গোল করার রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন রোনাল্ডো। যদিও সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এখনও রিয়ালের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা রাউল গঞ্জালেস। তবে রিয়াল কিংবদন্তির চেয়ে খুব বেশি পিছিয়ে নেই সি আর সেভেন। রাউলের ৩২৩ গোলের চেয়ে মাত্র দুই গোল পিছিয়ে আছেন সাবেক ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড তারকা। এ কারণে ইতিহাস গড়ার হাতছানি নিয়ে জ¬াতান ইব্রাহিমোভিচের দেশে অবস্থান করছেন রোনাল্ডো।

লা লিগায় ১২ সেপ্টেম্বর এস্পানিওলের বিপক্ষে একাই পাঁচ গোল করেন রোনাল্ডো। এরপর ১৫ সেপ্টেম্বর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে শাখতারের বিপক্ষে করেন তিন গোল। দুই ম্যাচে আট গোল করে অনেক রেকর্ড পদতলে ফেলেন পর্তুগাল অধিনায়ক। অপেক্ষায় আছেন আরও রেকর্ডের। কিন্তু লা লিগার সর্বশেষ তিন ম্যাচে এই সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি। গ্রানাডা, এ্যাথলেটিক বিলবাও ও মালাগার বিপক্ষে জাল খুঁজে পাননি গোলমেশিন রোনাল্ডো। আজ রাতে সেই আক্ষেপ ঘোচাতে সুইডব্যাংকে মাঠে নামছেন ফিফা ব্যালন ডি’অর জয়ী তারকা। এই ম্যাচে হ্যাটট্রিক হলে তো কথাই নেই, একটি গোল করলেই দারুণ এক মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলবেন রোনাল্ডো। মালমোর জালে একবার বল পাঠাতে পারলেই পেশাদার ফুটবল ক্যারিয়ারে ৫০০ গোল হয়ে যাবে রিয়াল মাদ্রিদ তারকার। ২০০২ সালে ক্যারিয়ার শুরুর পর ক্লাব ও জাতীয় দলের জার্সি গায়ে এখন পর্যন্ত তার গোল সংখ্যা ৪৯৯।

দুই ম্যাচে আট গোল করে রাউলের অনেক কাছাকাছি চলে আসেন তিনবারের ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার। অথচ এর আগে ক্লাব ও জাতীয় দল মিলিয়ে গোল পাননি টানা আট ম্যাচে। নতুন মৌসুমে লা লিগায় প্রথম দুই ম্যাচেও ছিলেন গোলশূন্য। যে কারণে সমালোচনার মৃদু বাতাস বইছিল রোনাল্ডোকে নিয়ে! কিন্তু কেন যে তাকে বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলার বলা হয় সে প্রমাণ আরও একবার রাখেন পর্তুগাল অধিনায়ক। অবিশ্বাস্য, চোখ ধাঁধানো, অনুপম ফুটবলশৈলী প্রদর্শন করে বন্ধ করে দিয়েছেন সমালোচকদের মুখ। ২২৮ গোল করে লা লিগায় রিয়ালের হয়ে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডটি এর আগে ছিল স্প্যানিশ তারকা রাউলের দখলে। এস্পানিওলের বিপক্ষে রোনাল্ডো ম্যাচটি শুরু করেছিলেন ২২৫ গোল নিয়ে। একে একে পাঁচ গোল করে তিনি ছাড়িয়ে যান রাউলকে। ১৯৯৪ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত ২২৮ গোল করতে রাউল খেলেছেন ৫৫০ ম্যাচ। আর রোনাল্ডো ২৩০ গোল করেছেন মাত্র ২০৬ ম্যাচ খেলে। রিয়ালের হয়ে সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়ার পর রোনাল্ডোর সামনে অপেক্ষা করছে লা লিগার ইতিহাসে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা হওয়া। এ তালিকায় সি আর সেভেনের বর্তমান অবস্থান চার নম্বরে। তার সামনে আছেন শুধু হুগো সানচেজ (২৩৪), টেলমো জারা (২৫১) ও চিরপ্রতিন্দ্বন্দ্বী লিওনেল মেসি (২৮৯)।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া