২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পাচারের আগের দিন গফরগাঁও থেকে স্কুলছাত্রী উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা, গফরগাঁও, ২৯ সেপ্টেম্বর ॥ মালয়েশিয়ায় পাচার করার জন্য খুলনার হরিণটানা থানার বয়রা রায়মন গ্রামের ৮ম শ্রেণীর স্কুলছাত্রীকে অপহরণের দেড় মাস পর ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের পাগলা থানার দক্ষিণ লামকাইন গ্রামের শাহজাহানের বাড়ি থেকে স্থানীয়দের সহায়তায় সোমবার রাতে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এলাকাবাসী, পুলিশ ও অপহৃতার পরিবার সূত্রে জানা যায়, দেড় মাস পূর্বে খুলনার হরিণটানা থানার রায়মন গ্রামের মোস্তফা সেকের ৮ম শ্রেণীতে পড়ুয়া কন্যা মলেনা আক্তার মনি (টুকটুকিকে) তার বড় বোন ময়নার মাধ্যমে পাচারকারী চক্র কৌশলে বাড়ি থেকে ঢাকায় নিয়ে আসে। পরে তিতাস গ্যাস গফরগাঁও অফিসের অফিস সহায়ক রওশন আর বেগম মনিকে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে তার ঢাকার মিরপুরের বাসায় রাখে। পরে মলেনা আক্তার মনির নাম পরিবর্তন করে মারিয়া আক্তার, স্বামী মফিজুল ইসলাম, ঢাকার কেরানীগঞ্জের পশ্চিমদিকা ঠিকানা ব্যবহার করে পাসর্পোট করে মনিকে মালয়েশিয়া পাচারের জন্য গত কয়েকদিন আগে রওশন আরার আত্মীয় গফরগাঁওয়ের লামকাইন গ্রামের শাহজাহানের বাড়িতে নিয়ে আসে। রবিবার রাতে মনি কান্নাকাটি শুরু করলে শাহজাহানের স্ত্রী সমলা বেগম কোনভাবেই কান্না থামাতে না পেরে কারণ জানতে চায়। মনি জানায় তাকে বিদেশে পাচার করতে এখানে নিয়ে এসেছে বলে জানালে সমলা বেগম স্থানীয় ইউপি সদস্য আরিফ মাহমুদের কানে তোলে। আজ বুধবার মনির মালয়েশিয়ার যাওয়ার কথা ছিল। গত সোমবার রাতে ইউপি সদস্যের সহায়তায় গফরগাঁও সার্কেলের সিনিয়র এএসপি বিল্লাল হোসেন ও পাগলা থানার ওসি চান মিয়া দক্ষিণ লামকাইন গ্রাম থেকে মনিকে উদ্ধার করে।

গত দেড় মাস পূর্বে মনির খোঁজে তার মা রমিজা খাতুন খুলনার সোনাডাঙ্গা থানায় জিডি করেন।

মনি জানায়, সে তার মায়ের জন্য পান কিনতে বাড়ির বাইরে আসে। সেখানে তার বড় বোন ময়না তাকে নানীর বাড়িতে বেড়ানোর কথা বলে খুলনা বাসস্ট্যান্ডে নিয়ে আসে।

সেখান থেকে ঢাকার বাসে চড়ে দূর সম্পর্কের খালা রওশনের মিরপুরের বাসায় যায়। কিন্তু তখন পর্যন্ত দুই বোনের কেউ জানতো না রওশন মূলত পাচারকারী।

বকশীগঞ্জে পুকুরে ডুবে স্কুলছাত্রীর মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, জামালপুর, ২৯ সেপ্টেম্বর ॥ মঙ্গলবার দুপুরে জেলার বকশীগঞ্জে পুকুরে পড়ে আশামনি নামে এক স্কুলছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে।

সে জিনিয়া ওমর মডেল একাডেমির ৩য় শ্রেণীর ছাত্রী। জানা গেছে, আশামনি তার সহপাঠীদের সঙ্গে বাড়ির পার্শ্ববর্তী পুকুরে গোসল করতে যায়। গভীর জলে ডুবে যায়।

নির্বাচিত সংবাদ