১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বার কাউন্সিল নির্বাচনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আবেদন

বার কাউন্সিল নির্বাচনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে আবেদন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সম্প্রতি অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচন ও এর ফলাফলের গেজেটের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে পাঁচটি আবেদন করা হয়েছে। বুধবার বার কাউন্সিল সচিব আ ক ম জহুরুল আলম বরাবর আবেদনগুলো করেন নির্বাচনে পরাজিত প্রার্থী বিএনপিপন্থি আইনজীবী সানাউল্লা মিয়াসহ সংক্ষুব্ধ কয়েকজন আইনজীবী। আবেদনে বিবাদী করা হয়েছে বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যানসহ বিজয়ী সব প্রার্থীকে।

২৬ আগস্ট অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ১৪টি পদের বিপরীতে ১১টিতে জয়ী হন ক্ষমতাসীন দলের সমর্থক আইনজীবীরা। এরপর ৩ সেপ্টেম্বর নির্বাচনের ফল প্রকাশ করে গেজেট জারি হয়। নিয়ম অনুসারে প্রথম বৈঠকে (২২ সেপ্টেম্বর) ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদার।

বার কাউন্সিলের নির্বাচনী ট্রাইব্যুনাল তিন সদস্য নিয়ে গঠিত। তারা হলেন, অ্যাডভোকেট হাবিবুল ইসলাম ভূঁইয়া, গোলাম মোস্তফা ও এবিএম ওয়ালীউর রহমান খান। আবেদনে সানাউল্লা মিয়া সরকার সমর্থক বিজয়ী প্রার্থী শ ম রেজাউল করিম, মহসিন মিয়া বিজয়ী প্রার্থী জেড আই খান পান্না এবং গোলাম মোস্তফা খান নির্বাচিত প্রার্থী কাজী নজিবুল্লাহ হিরুকে বিজয়ী ঘোষণা করার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করেন।

অপরদিকে পাঁচ ভোটার এ এস এম মোক্তার কবির খান, মাজেদুল ইসলাম পাটোয়ারী, জসিম সরকার, মোহাম্মদ আলী, হযরত আলী নির্বাচিত সদস্য আবদুল মতিন খসরু এবং ভোটার নাজমুল হুদা, এহসানুর রহমান, সানজিদ সিদ্দিকী, নাঈমা জামান, এস এম জুলফিকার আলী পুরো নির্বাচন প্রক্রিয়াকেই চ্যালেঞ্জ করেছেন। আবেদনকারীদের দাবি, বার কাউন্সিলের আইন অনুসারে সব ব্যালট চেয়ারম্যান গণনা করবেন। কিন্তু চেয়ারম্যান ব্যালট গণনা না করে শুধু বিভিন্ন আইনজীবী সমিতি থেকে আসা ভোট একত্র করে বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন।