২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চার্জশীট দাখিলের পরও বহাল উপজেলা চেয়ারম্যান

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ কক্সবাজার আদালতে দুটি মামলার অভিযোগপত্র গৃহীত হওয়ার তথ্য গোপন রেখে পার্বত্য নাইক্ষ্যংছড়িতে এক জামায়াত নেতা বেআইনীভাবে জনপ্রতিনিধিত্বের কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। অবৈধ অস্ত্র-গুলি নিজ হেফাজতে রাখার এবং ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতসহ অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর-লুটতরাজ ও ক্ষয়ক্ষতির অপরাধে ফৌজদারি দ-বিধি মতে, আদালতের হাকিম শুনানি শেষে তার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেছেন। দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী জনপ্রতিনিধির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট গৃহীত হলে ওই প্রতিনিধিকে সাময়িক বরখাস্ত করার বিধান রয়েছে। বরখাস্ত হওয়ার ভয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমদ স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট দফতরে আদালতে গৃহীত দুটি চার্জশীটের তথ্য গোপন রেখেছেন বলে জানা গেছে। উপজেলা জামায়াতের সহসভাপতি তোফায়েল আহমদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ চার্জশীট দাখিল করলে গত বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি অস্ত্র আইনে দাখিলকৃত অভিযোগপত্র গৃহীত হয় আদালতে। এছাড়া আরেকটি মামলার তদন্ত শেষে পুলিশ উপজেলা চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমদসহ অন্যদের বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করে। চলতি বছরের ১ জুন আদালতে ওই অভিযোগপত্রটিও গঠন করা হয়েছে। প্রায় এক বছর আট মাস ধরে ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত হওয়ার পরও তথ্য গোপন রেখে তোফায়েল উপজেলা চেয়ারম্যানের চেয়ার আঁকড়ে রয়েছেন। অস্ত্র আইনে এবং ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতসহ অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর-লুটতরাজ ও ক্ষয়ক্ষতির অপরাধে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমদের বিরুদ্ধে কক্সবাজার আদালতে অভিযোগপত্র গৃহীত হওয়া সত্ত্বেও তিনি বহাল তবিয়তে থাকায় জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

তোফায়েল আহমদ তার বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট গঠন হওয়ার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আমি কারাগারে থাকা অবস্থায় এবং পুনরায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার আগেই মামলাগুলোর চার্জশীট দাখিল করা হয়েছে। নতুন করে আমার বিরুদ্ধে কোন মামলা হয়নি। আমি বর্তমানে সরকারবিরোধী কোন কার্যকলাপে জড়িত নই।

মুন্সীগঞ্জে গ্রামীণ মেলায় মানুষের ঢল

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ সিরাজদিখানের ঐতিহ্যবাহী মালখানগরে ঈদপরবর্তী গ্রামীণ মেলা সোমবার রাতে শেষ হয়েছে। মালখানগর মাঠে ঈদের পরদিন শনিবার থেকে সোমবার পর্যন্ত তিন দিনব্যাপী এই মেলায় মানুষের ঢল নেমেছিল। জেলার শ্রেষ্ঠ সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন হিসেবে পুরস্কারপ্রাপ্ত ‘ফ্রেন্ডস এ্যাসোসিয়েশন অব মালখানগর’ গত ১০ বছরের মতো এবারও এই গ্রামীণ মেলার আয়োজন করে। বিশাল এই মেলায় দু’শতাধিক স্টল নানান পসরা সাজিয়ে বসেছিল। সোমবার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন তথ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য সুকুমার রঞ্জন ঘোষ এমপি। ফ্রেন্ডস এ্যাসোসিয়েশন অব মালখানগরের সভাপতি আশরাফুজ্জামান সোহেলের সভাপতিত্বে সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- সিরাজদিখান উপজেলা চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আঃ মতিন হাওলাদার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম সোহরাব হোসেন, জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বল প্রমুখ।

নির্বাচিত সংবাদ