১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পাঁচ মামলার শুনানি শেষে ১৫ রাজাকারের বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনালের নির্দেশনা

  • যুদ্ধাপরাধী বিচার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে বুধবার ট্রাইব্যুনালে ৫টি মামলার বিভিন্ন পর্যায়ে শুনানি হয়েছে। এর মধ্যে ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার গ্রেফতারকৃত রিয়াজ ফকির ও পলাতক ওয়াজউদ্দিনের বিরুদ্ধে (ফরমাল চার্জ) আনুষ্ঠানিক অভিযোগ বা তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দিয়েছে ট্রাইব্যুনাল। ফরমাল চার্জ বা তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ১২ নবেম্বর দিন ধার্য করা হয়েছে। নেত্রকোনার ৭ রাজাকারের বিরুদ্ধে ১৫ নবেম্বর তদন্ত প্রতিবেদন জমার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। জামালপুরের ৮ রাজাকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য আগামী ৭ অক্টোবর দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। শরীয়তপুরের সোলায়মান মোল্লা ওরফে সলেমান মৌলভী ও পলাতক ইদ্রিস আলীর বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিলের নির্দেশ দিয়েছে ট্রাইব্যুনাল। অন্যদিকে যশোরের ৬ রাজাকারের আত্মসমর্পণ করতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির নির্দেশ দেয়া হয়েছে। চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারুল হকের নেতৃত্বে তিন সদস্য বিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল -১ বুধবার এই আদেশগুলো প্রদান করেছে। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি মোঃ শাহিনুর ইসলাম ও বিচারপতি মোহাম্মদ সোহরাওয়ার্দী।

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার গ্রেফতারকৃত রিয়াজ ফকির ও পলাতক ওয়াজউদ্দিনের বিরুদ্ধে (ফরমাল চার্জ) আনুষ্ঠানিক অভিযোগ বা তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদন ১২ নবেম্বর দাখিল করার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আদালতে প্রসিকিউশন পক্ষে শুনানি করেন প্রসিকিউটর ঋষিকেশ সাহা। অপর দিকে আসামি পক্ষে উপস্থিত ছিলেন আইনজীবী গাজী এমএইচ তামিম। প্রসিকিউশনে উপস্থিত ছিলেন চিফ প্রসিকিউটর গোলাম আরিফ টিপু, প্রসিকিউটর সৈয়দ হায়দার আলী। এর আগে ২ মাসের সময় আবেদন করেন প্রসিকিউশনের পক্ষে প্রসিকিউটর ঋষিকেশ সাহা। সময় আবেদন শুনানির পর ফরমাল চার্জ বা তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ১২ নবেম্বর দিন ধার্য করে আদালত। উল্লেখ্য, এর আগে ময়মনসিংহের উপজেলার ভালুকজান গ্রামের শহীদ তালেব ম-লের ছেলে খোরশেদ আলী বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় খোরশেদ আলীর বাবা তালেব ম-লকে আখিলা নদীর ব্রিজের ওপর দাঁড় করে গুলি করে হত্যা করা হয়। আর এ হত্যাকা-টি ঘটে থানা রাজাকার বাহিনীর প্রধান আমজাদ ও আলবদর বাহিনীর প্রধান রিয়াজ ফকিরের নেতৃত্বে।

নেত্রকোনার ৭ রাজাকার ॥ মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে নেত্রকোনার ৭ রাজাকারের বিরুদ্ধে ১৫ নবেম্বর তদন্ত প্রতিবেদন জমার নির্দেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। নেত্রকোনার পূর্বধলা থানার অভিযুক্ত এসব আসামি মধ্যে আটক রয়েছেন- আসামি আব্দুর রহমান (৭৫) ও আহমদ আলী (৭৮)। এ ছাড়াও মামলার পলাতক আসামিরা হলেন- শেখ মোঃ আব্দুল মজিদ ওরফে মজিদ মাওলানা, মোঃ আব্দুল খালেক তালুকদার, কবির খান, মোঃ নুরুদ্দিন ওরফে রুদ্দিন এবং ছালাম বেগ। বুধবার প্রসিকিউশন পক্ষের পৃথক দুটি আবেদনের শুনানি শেষে ট্রাইব্যুনাল এ আদেশ প্রদান করেন।

এর আগে আসামি আহমদ আলীকে সেফ হোমে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ট্রাইব্যুনালের নিকট আবেদনের শুনানি করেন প্রসিকিউটর মোখলেছুর রহমান বাদল। আবেদনের প্রেক্ষিতে ট্রাইব্যুনাল আসামিকে ১ দিনের জিজ্ঞাবাদের সময় মঞ্জুর করেন। পরে এ মামলার অন্য আসামিদের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য সময় আবেদন প্রসিকিউটর মোখলেছুর রহমান বাদল। এ সময় তাকে সাহায্য করেন প্রসিকিউটর সাবিনা ইয়াসমিন মুন্নি।

জামালপুরের ৮ রাজাকার ॥ মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় জামালপুরের ৮ রাজাকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য আগামী ৭ অক্টোবর পরবর্তী দিন নির্ধারণ করেছেন ট্রাইব্যুনাল। বুধবার প্রসিকিউশন পক্ষের আইনজীবীদের শুনানি শেষে ট্রাইব্যুনাল এ আদেশ প্রদান করেছে।

শরীয়তপুরের ২ রাজাকার ॥ মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে আটক শরীয়তপুরের সোলায়মান মোল্লা ওরফে সলেমান মৌলভী ও পলাতক ইদ্রিস আলীর বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।

বিজ্ঞপ্তির নির্দেশ ॥ একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় পলাতক যশোরের ৬ আসামিকে আত্মসমর্পণ করতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তির নির্দেশ দেয়া হয়েছে। পলাতক এসব আসামিরা হলেন- মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, শেখ মোহাম্মদ মুজিবর রহমান, মোঃ আব্দুল আজিজ সরদার, মো. আজিজ সরদার, কাজী ওয়াহেদুল ইসলাম এবং মোঃ আব্দুল খালেক মোড়ল। ট্রাইব্যুনাল-১ পলাতক ৬ জনকে আত্মসমর্পণের জন্য পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের নির্দেশ দেন।