১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দেশে-বিদেশে মামুনুলদের প্রস্তুতি ম্যাচ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ একটা প্রবাদ আছে, ‘ইচ্ছা করিলে উপায় হয়। এক লাফে কখনও মগডালে পৌঁছানো যায় না। এ জন্য প্রয়োজন ধাপে ধাপে অগ্রসর হওয়া বা একটার পর একটা বাধা পেরুনো। অভীষ্ট লক্ষ্যে উপনীত হলে গেলে চাই সদিচ্ছা, আত্মবিশ্বাস, সঠিক-দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা এবং যথাযথ প্রস্তুতি বা অনুশীলন। ফিফা বিশ্বকাপ (রাশিয়া ২০১৮)-এর মূলপর্বে যেতে হলে আগে দরকার বাছাইপর্বের চড়াই-উতরাই পেরুনো। সেই পরীক্ষাই এখন দিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। এশিয়া জোনের ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের আট ম্যাচের মধ্যে চারটিই খেলে ফেলেছে ‘বেঙ্গল টাইগার্স’রা। এর মধ্যে হেরেছে তিনটিতেই (অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৫-০, জর্দানের কাছে ৪-০ এবং কিরগিজস্তানের কাছে ৩-১ গোলে), ড্র করেছে একটিতে (তাজিকিস্তানের সঙ্গে ১-১)। বোঝাই যাচ্ছে, পরীক্ষা যেটুকু হয়েছে, খুব একটা ভাল হয়নি। তবে এখনও যতটুকু বাকি আছে, সেগুলোতে যদি মোটামুটি ভাল রেজাল্ট করা যায়, তাহলে মূলপর্বে যেতে না পারলেও একটা সম্মানজনক পর্যায়ে যেতে পারবে ফ্যাবিও লোপেজের শিষ্যরা। তাদের পরবর্তী পরীক্ষা আগামী ১২ অক্টোবর কিরগিস্তানের বিপক্ষে (এ্যাওয়ে ম্যাচ)। এ লক্ষ্যে সাভারের জিরানির বিকেএসপিতে জোর অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছে মামুনুল বাহিনী। প্রথমে প্রাথমিক দল ছিল ৪১ জনের। এদের নিয়ে কয়েকদিন ঢাকার বাফুফে ক্যাম্পে অনুশীলন চলে। পরে ঢাকা থেকে বিকেএসপি যাওয়ার আগে লোপেজ ছেঁটে ফেলেন ১২ ফুটবলারকে। ২৯ জনকে নিয়েই চলছে অনুশীলন। বিমানযোগে কিরগিজস্তান রওনা হওয়ার আগে ২৩ জনের চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করবেন ইতালিয়ান কোচ লোপেজ। ক’দিন আগেই ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে জাতীয় দল একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে বাংলাদেশ অনুর্ধ ১৯ জাতীয় ফুটবল দলের সঙ্গে। সে ম্যাচে জাতীয় দল ১-০ গোলে যুবদলকে হারালেও তাদের খেলায় সন্তুষ্ট হতে পারেননি কোচ লোপেজ। তার চোখে ধরা পড়েছিল নিজের শিষ্যদের ফিটনেসের অভাব এবং যুবদলের চমৎকার পারফর্মেন্স। তখনই লোপেজ বলেছিলেন, কিরগিজস্তান যাওয়ার আগে আরও কয়েকটা প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে পারলে ভাল হতো। বাফুফে সেই চেষ্টাই করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যেই একটি প্রস্তুতি ম্যাচের দিনক্ষণ, ভেন্যু ও প্রতিপক্ষও ঠিক হয়ে গেছে। এ প্রসঙ্গে বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ জানান, ‘আগামী ৫ অক্টোবর বিকেএসপিতে একটি প্রস্তুতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। এতে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল মোকাবেলা করবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের বিভিন্ন ক্লাবের খেলোয়াড়দের নিয়ে গড়া অবশিষ্ট একাদশের। অবশিষ্ট একাদশের সব ফুটবলারই হবেন বাংলাদেশী, অর্থাৎ তাদের পক্ষে কোন বিদেশী ফুটবলার খেলবেন না। শুধু তাই নয়, বাফুফে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে কিরগিজদের মোকাবেলার আগে যেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল অন্তত একটি ফিফা প্রীতি ম্যাচ খেলে নিজেদের আরও ঝালিয়ে নিতে পারে। এ প্রসঙ্গে আবু নাইম সোহাগ বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি তুর্কেমেনিস্তান অথবা কাজাখস্তানের সঙ্গে একটি ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচ খেলার। আমরা ইতোমধ্যে তাদের কাছে প্রস্তাব পাঠিয়েছি। এখনও তারা কোন সাড়া দেয়নি। দেখা যাক, কি হয়।’ ডেনমার্ক প্রবাসী জামাল ভূঁইয়া ডেনমার্কে ছুটি কাটিয়ে ঢাকায় ফিরে মঙ্গলবারই ক্যাম্পে (বিকেএসপিতে) যোগ দিয়েছেন। ৪১ জনের প্রাথমিক দল ছোট করে ২৯ জনের যে দল ঘোষণা করা হয়েছে, সেখনে নেই মিডফিল্ডার হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাস। ঈদের আগে ক্যাম্প শুরু হলেও হেমন্ত অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে ক্যাম্পে যোগ দেননি।