১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইউরোপে গাড়ি থেকে অতিরিক্ত কার্বন নির্গমন: সমীক্ষা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার॥ ভক্সওয়াগনের পর এবার ইউরোপের অন্যান্য গাড়ি নির্মাতাদের গাড়িতেও অতিরিক্ত কার্বন নির্গমনের তথ্য বেরিয়ে আসছে। ইন্টারন্যাশনাল কাউন্সিল অন ক্লিন ট্রান্সপোর্টেশনের এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, ২০১৪ সালে ইউরোপে নির্মাতাদের দাবির চেয়ে তাদের নির্মিত গাড়ি থেকে ৪০ শতাংশ বেশি কার্বন নির্গমন হয়েছে।

মুলত ২০০১ সাল থেকেই কারখানার পরীক্ষাগারে নির্গত মাত্রার চেয়ে রাস্তায় অতিরিক্ত কার্বন নির্গমনের পরিমান ক্রমেই বাড়ছে। বর্তমানে এই পার্থক্য ৩০ শতাংশের বেশি বেড়ে গেছে। বিশেষ করে মার্সিডিজ, বিএমডব্লিউ, পিয়াজিয়টের মতো নামী দামি কোম্পানির মধ্যম মানের গাড়িতে নির্ধারিত মাত্রার চেয়ে বাস্তবে ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বেশি কার্বন নির্গমন হচ্ছে।

সম্প্রতি মার্কিন মুলুকে জার্মান গাড়ি নির্মানকারী বহুজাতিক কোম্পানির ভক্সওয়াগনের দূষণ কেলেঙ্কারি জানাজানি হওয়ার পর একে একে গাড়ি নির্মাতাদের কার্বন নির্গমন কেলেংকারির ঘটনা বেরিয়ে আসছে। কার্বন নির্গমনের মাত্রা পরীক্ষায় যাতে ধরা না-পড়ে, তার জন্য কারচুপি করেছে ভ´ওয়াগন। ডিজেল গাড়ি তৈরির সময়ই তাতে বসিয়ে রাখে এমন সফটওয়্যার, যাতে তা চলার সময় আসলে যা দূষণ হচ্ছে, সেটি কমিয়ে দেখানো যায়। পরীক্ষা করতে গেলেই চালু হয়ে যায় ওই সফটওয়্যার। আর তার ফলে দূষণের মাত্রা নেমে আসে আসলের তুলনায় অনেক নীচে।

এ ঘটনা জানাজানির পর থেকেই আমেরিকা, ইউরোপ, এমনকী এশিয়াতেও একের পর এক দেশে তদন্তের মুখে পড়তে হচ্ছে জার্মান গাড়ি নির্মাতাটিকে। ভক্সওয়াগন স্বীকার করে নিয়েছে, ১.১ কোটি ডিজেল গাড়িতে দূষণ আইন ফাঁকি দেওয়ার ওই প্রযুক্তি ব্যবহার করেছে তারা।