২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কোন অন্যায় করেননি প্লাতিনি!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার সভাপতি সেপ ব্লাটারের সঙ্গে নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছেন মিশেল প্লাতিনিও। গত সপ্তাহে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে এমন প্রতিবেদনই উঠে আসে। তবে বুধবার গভর্নিং বডির বৈঠক শেষে উয়েফার বর্তমান প্রধান মিশেল প্লাতিনির প্রশংসা করেছে ইংলিশ ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা এফএ। তাদের দাবী, প্লাতিনি কোন ধরণের অন্যায় কাজ করেননি। যে কারণে সেপ ব্লাটারের উত্তরসূরী হিসেবে তিনিই ফিফার মসনদে বসার যোগ্য ব্যক্তি। সবকিছুই ঠিকঠাক ছিল। সভাপতির পদে ফ্রান্সের সাবেক তারকা ফুটবলার প্লাতিনিই দৌড়ে এগিয়ে ছিলেন। কিন্তু গত সপ্তাহে হঠাৎ করেই আবারও উত্তাল হয়ে উঠে ফুটবল-অঙ্গন। ফিফার ইথিকস কমিটি দুর্নীতির জন্য তদন্ত শুরু করে। আর তখনই সুইস সংবাদ মাধ্যম দাবি করে ব্লাটার ও প্লাতিনি দুজনই ফিফা থেকে নিষিদ্ধ হতে পারেন। কিন্তু এফএ এসবকে উড়িয়ে দিয়ে প্লাতিনিকেই ফিফার পরবর্তী সভাপতি হিসেবে যোগ্য বলে দাবী করেছেন।

এদিকে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা ফিফার অনিয়ম-দুর্নীতি নিয়ে আরেকবার মুখ খুললেন আর্জেন্টাইন ফুটবলের জীবন্ত কিংবদন্তি দিয়েগো ম্যারাডোনা। ফিফার সভাপতি সেপ ব্লাটারকে ‘অসাধু ব্যক্তি’ আর উয়েফার সভাপতি মিশেল প্লাতিনিকে ‘মিথ্যাবাদী’ বলে আখ্যা দিয়েছেন তিনি। সংবাদ কর্মীদের ফিফা প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে ম্যারাডোনা বলেন, ‘আরও কিছু ফিফার কর্মকর্তাকে জেলে ঢোকানো প্রয়োজন। ফিফার মতো বড় প্রতিষ্ঠানে পদ দেওয়ার জন্য আমি এখনও জর্ডানের প্রিন্স নাসের আল হুসেইনকে সমর্থন করছি। আমি আগেও বলেছি এখনও বলছি ফিফা সভাপতি ব্লাটার দুর্নীতির সঙ্গে সরাসরি যুক্ত। তিনি একজন অসাধু ব্যক্তি।’