২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যৌতুকের জন্য নববধূর গায়ে ছ্যাঁকা

নিজস্ব সংবাদদাতা, লক্ষ্মীপুর, ১ অক্টোবর ॥ লক্ষ্মীপুরে ৩ লাখ টাকা যৌতুক না পেয়ে পারভীন আক্তার নামে এক নববধূকে মারধর করে শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে ছ্যাঁকা দিয়ে ও মরিচের গুঁড়ো লাগিয়ে নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তার স্বামী মুরাদ হোসেন ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার বিকেলে সদর থানায় অভিযোগ করেন ভিকটিম পরিবার। বর্তমানে ওই গৃহবধূ লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এর আগে বুধবার রাতে লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের আঠিয়াতলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নির্যাতনের শিকার পারভীন আক্তার ও তার মা শিউলি আক্তার জানায়, গত চার মাস পূর্বে লক্ষ্মীপুর পৌর শহরের আঠিয়াতলী গ্রামের আবু ছিদ্দিকের ছেলে মুরাদ হোসেন ও পার্শ্ববর্তী বাঞ্ছানগর গ্রামের আব্দুস শহীদের মেয়ে পারভীন আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর ৫০ হাজার টাকা যৌতুক নেয় মুরাদ হোসেন। এর পর আবারও তিন লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে আসছে মুরাদ ও তার পরিবার। দাবিকৃত টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় বুধবার রাতে ঘরের দরজা বন্ধ করে মুরাদ, তার ভাই রিয়াজ, মা মনোয়ারা বেগমসহ পারভীন আক্তারকে মারধর করে। এক পর্যায়ে লোহার পাত গরম করে বুকে ছ্যাঁকা ও চোখেমুখে এবং গোপনাঙ্গে মরিচের গুঁড়ো লাগিয়ে নির্যাতন চালায়। খবর পেয়ে পারভীনের মা ও বাবা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার কমলাশীষ রায় বলেন, পারভীনের বুকে ছ্যাঁকার চিহ্ন রয়েছে। এ ছাড়া গোপনাঙ্গে মরিচের গুঁড়ো দিয়ে নির্যাতন করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, অভিযোগের আলোকে অপরাধীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হবে।