২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

উন্নয়নে আরও গতি আনতে সমন্বয় কমিটি পুনর্গঠন

  • সভায় প্রত্যেক সদস্যের উপস্থিতি বাধ্যতামূলক

তপন বিশ্বাস ॥ বিভাগীয় ও জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় প্রত্যেক সদস্যের উপস্থিতি বাধ্যতামূলক করে এ সংক্রান্ত কমিটি পুনর্গঠন করেছে সরকার। দেশের উন্নয়ন কার্যক্রম আরও গতিশীল ও ফলপ্রসূ করতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ বৃহস্পতিবার বিভাগীয় উন্নয়ন সমন্বয় কমিটি ও জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটি পুনর্গঠন করে আদেশ জারি করেছে। এতে সদস্যদের উপস্থিতি যথাযথভাবে পরিবীক্ষণের লক্ষ্যে উপস্থিতি সম্পর্কিত প্রতিবেদন নিয়মিতভাবে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে প্রেরণের জন্য কমিটির সভাপতিদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আদেশে বলা হয়েছে, সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়/বিভাগ মাঠ পর্যায়ের দফতরসমূহের মাধ্যমে নানামুখী উন্নয়ন প্রকল্প/কর্মসূচী বাস্তবায়ন করে থাকে। সংশ্লিষ্ট অধিদফতর/সংস্থাসমূহের উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ নিয়মিতভাবে উন্নয়ন প্রকল্প/কর্মসূচীর বাস্তবায়ন তত্ত্বাবধায়ন ও পরিবীক্ষণ করবেন, এটি প্রত্যাশিত। তবে, এ সব উন্নয়ন কার্যক্রমে দ্রুত ও সফল বাস্তবায়ন বহুলাংশে নির্ভর করে মাঠ পর্যায়ে অন্যান্য দফতরের সহায়তা ও সহযোগিতার ওপর। এ সহায়তা ও সহযোগিতা নিশ্চিতকরণে আন্তঃবিভাগীয় সমন্বয় অপরিহার্য। যথাযথ প্রকল্প চিহ্নিতকরণ, যুক্তিসঙ্গতভাবে প্রকল্প এলাকা নির্ধারণ, দ্বৈততা পরিহার এবং সঠিকভাবে সুবিধাভোগী নির্বাচনের ক্ষেত্রেও স্থানীয় পর্যায়ে সমন্বয়ের গুরুত্ব অনস্বীকার্য। এ প্রেক্ষাপটে বিভাগ ও জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটিসমূহ অত্যন্ত গঠনমূলক ভূমিকা পালন করে চলেছে। ইতোমধ্যে সরকারের উন্নয়ন-কার্যক্রম বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে এবং প্রশাসনিক কাঠামো উত্তরোত্তর বিস্তৃত ও শক্তিশালী হয়েছে। এ অবস্থায় দেশের উন্নয়ন-কার্যক্রম আরও গতিশীল এবং ফলপ্রসূ করার লক্ষ্যে বিভাগীয় উন্নয়ন সমন্বয় কমিটি ও জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটি গঠন করা হলো।

পুনর্গঠিত এই বিভাগীয় উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন সংশ্লিষ্ট বিভাগীয় কমিশনার। আর জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভাপতি হিসেবে রয়েছেন জেলা প্রশাসক। বিভাগীয় উন্নয়ন কার্যক্রমের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সরকারী/স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের বিভাগীয় পর্যায়ের দফতর প্রধান ছাড়াও কমিটির সদস্য রয়েছেন স্থানীয় সরকারের পরিচালক, সংশ্লিষ্ট বিভাগের জেলা প্রশাসক, সংশ্লিষ্ট বিভাগের সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে), সংশ্লিষ্ট বিভাগের জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং সংশ্লিষ্ট বিভাগের জোনাল সেটেলমেন্ট অফিসার। কমিটির সদস্য সচিব হিসেবে থাকবেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক)।

কমিটি প্রয়োজনে অন্য যে কোন সরকারী/স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের বিভাগীয় পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং সংশ্লিষ্ট প্রশাসনিক বিভাগে অবস্থিত জাতীয় পর্যায়ের কোন প্রতিষ্ঠানের প্রধান কিংবা তার প্রতিনিধিকে কমিটিতে সংযোজন কিংবা কোন সভায় অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানাতে পারবে।

বিভাগীয় উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির কার্যপদ্ধতির মধ্যে রয়েছে, বিভিন্ন অধিদফতর/সংস্থার আওতায় গৃহীত উন্নয়ন প্রকল্প/কর্মসূচী বাস্তবায়ন সংক্রান্ত কার্যক্রমের পরিবীক্ষণ ও সমন্বয় সাধন; জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির কার্যক্রম পরিবীক্ষণ ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে উক্ত কমিটিকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান; জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির কার্যক্রমে সমন্বয়ের অভাব পরিলক্ষিত হলে তা দূরীকরণের ব্যবস্থা গ্রহণ; সময়ে সময়ে উন্নয়ন প্রকল্প/কর্মসূচী পরিদর্শন এবং প্রকল্প/কর্মসূচী সংশ্লিষ্ট দফতরকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান।

এ ছাড়াও দেশের কিংবা সংশ্লিষ্ট এলাকার আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে কোন প্রকল্প/কর্মসূচীর প্রভাব পর্যালোচনা; উন্নয়ন প্রকল্প/কর্মসূচীর বাস্তবায়নের ভৌত ও আর্থিক অগ্রগতি পর্যালোচনা করে সরকারের কাছে প্রয়োজনীয় সুপারিশ প্রেরণ; কমিটির সুপারিশ/সিদ্ধান্ত সংশ্লিষ্ট দফতর/সংস্থা কর্তৃক বাস্তবায়িত হচ্ছে কি-না তা পরিবীক্ষণ; প্রযোজ্য ক্ষেত্রে প্রকল্প বাস্তবায়নকারী দফতর থেকে প্রাসঙ্গিক তথ্য/প্রতিবেদন সংগ্রহ, পর্যালোচনা এবং প্রয়োজনে এ সম্পর্কিত বিষয়ে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করা।

আদেশের মাধ্যমে কমিটির কর্মপদ্ধতিও নির্ধারণ করে দিয়েছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এতে বলা হয়েছে, প্রতি দুই মাস অন্তর নির্ধারিত তারিখে সভার আয়োজন; নির্ধারিত তারিখে ছুটি থাকলে পরবর্তী প্রথম কার্যদিবসে সভার আয়োজন; জরুরী প্রয়োজনে দুই মাসের আগে সভা আহ্বান; সংশ্লিষ্ট দফতরসমূহের কাছে প্রাপ্ত তথ্যাদির ভিত্তিতে সভার কার্যপত্র প্রণয়ন; সদস্যদের উপস্থিতি নিশ্চিতকরণ এবং কার্যবিবরণী দ্রুত সংশ্লিষ্ট সবার কাছে প্রেরণ।

জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সদস্য রয়েছেন, উন্নয়ন কার্যক্রমের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সরকারী/ স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের জেলা পর্যায়ের দফতর প্রধান; জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা; সংশ্লিষ্ট জেলার উপজেলাগুলোর চেয়ারম্যান; স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক; সংশ্লিষ্ট জেলার পৌরসভার মেয়র এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) কমিটির সদস্য সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। কমিটি প্রয়োজনে অন্য যে কোন সরকারী/স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের জেলা পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং সংশ্লিষ্ট জেলায় অবস্থিত জাতীয় পর্যায়ের কোন প্রতিষ্ঠানের উপযুক্ত প্রতিনিধিকে কমিটিতে সংযোজন কিংবা কোন সভায় অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণ জানাতে পারবে।