২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পাকিদের কাছে ১৩১ রানে হার জিম্বাবুইয়ের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ টি২০ সিরিজে ২-০ ব্যবধানে হেরে গিয়েছিল স্বাগতিক জিম্বাবুইয়ে। তবে দুই ম্যাচেই লড়াকু মনোভাব দেখিয়েছিল তারা। কিন্তু প্রথম ওয়ানডেতে উন্নতির কোন ছাপই দেখাতে পারেনি তারা। বরং লজ্জাজনক পরাজয় বরণ করেছে। বৃহস্পতিবার হারারে স্পোর্টস ক্লাবে সফরকারী পাকিস্তান ১৩১ রানের বিশাল ব্যবধানে জয় তুলে নিয়েছে। প্রথমে ব্যাট করে মোহাম্মদ রিজওয়ানের অপরাজিত ৭৫ ও ইমাদ ওয়াসিমের ৬১ রানে ভর দিয়ে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ২৫৯ রান তুলেছিল পাকিস্তান। জবাব দিতে নেমে ইয়াসির শাহর ভয়ানক ঘূর্ণি বলের কাছে নতি স্বীকার করে ৩৭ ওভারে মাত্র ১২৮ রানেই গুটিয়ে যায় জিম্বাবুইয়ে। এ জয়ের ফলে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল পাকিরা। টস জিতে পাকিস্তানকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় জিম্বাবুইয়ে। বোলাররা শুরু থেকেই দারুণ বোলিং করে অধিনায়ক এলটন চিগুম্বুরার সে সিদ্ধান্তকে যথার্থতা দিয়েছিলেন। শুরু থেকেই বিপর্যয়ে পড়ে পাকরা। পাকি ব্যাটসম্যানরা বড় ইনিংস খেলতে ব্যর্থ হয়েছেন। ফলে দলীয় ১২৮ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে জিম্বাবুইয়ে। সরফরাজ আহমেদ ও শোয়েব মালিক কিছুটা প্রতিরোধ গড়েছিলেন। তাদের বিদায়ের পর বিপদে পড়ে পাকরা। কিন্তু সপ্তম উইকেটে হাল ধরেন রিজওয়ান ও ইমাদ। জুটিতে ১২৪ রান যোগ করেন তারা। পাকদের রান তোলার গতিটাও ছিল মন্থর। তবে রিজওয়ান ও ইমাদ আক্রমণাত্মক মেজাজে খেলে দলকে দারুণ এক অবস্থানে পৌঁছে দিয়েছেন। সফরে দারুণ ফর্মে থাকা রিজওয়ান ওয়ানডে ক্যারিয়ারের তৃতীয় অর্ধশতক আদায় করে নেন। আর তরুণ ইমাদ ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটির পর বিদায় নেন আগেই। তিনি ৬১ বলে ৫ চারে ৬১ রান করার পর দুর্ভাগ্যজনক রানআউটের শিকার হন। তবে ততক্ষণে পাকরা মজবুত অবস্থানে চলে গেছে। শেষ পর্যন্ত রিজওয়ান ৭৪ বলে ৪ চার ও ২ ছক্কায় ৭৫ রানে অপরাজিত থাকেন। ৬ উইকেটে ২৫৯ রানের চ্যালেঞ্জিং সংগ্রহ পায় পাকিস্তান। দ্রুতই লেগস্পিনার ইয়াসিরকে আক্রমণে আনার পর সতর্ক জিম্বাবুইয়ের ব্যাটিং লাইনআপে চিড় ধরে। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে তারা। শেষ পর্যন্ত ধুঁকতে ধুঁকতে ১৩ ওভার আগেই ১২৮ রানে গুটিয়ে যায় জিম্বাবুইয়ে। ক্যারিয়ারসেরা বোলিং করে ইয়াসির ২৬ রানে ৬ উইকেট নেন। শোয়েব পান তিন উইকেট। স্কোর ॥ পাকিস্তান ইনিংস- ২৫৯/৬; ৫০ ওভার (রিজওয়ান ৭৫*, ইমাদ ৬১, সরফরাজ ৪৪, শোয়েব ৩১; নিয়ম্বু ১/৩৯, জঙ্গুয়ে ১/৪২, ক্রেমার ১/৪৫)। জিম্বাবুইয়ে ইনিংস- ১২৮/১০; ৩৭ ওভার (উইলিয়ামস ২৬, চিগুম্বুরা ২২, সিকান্দার ১৯; ইয়াসির ৬/২৬, শোয়েব ৩/৩০)। ফল ॥ পাকিস্তান ১৩১ রানে জয়ী। ম্যাচসেরা ॥ ইয়াসির শাহ (পাকিস্তান)।