১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টি২০ সিরিজ হারল সালমারা

  • ৩৪ রানে দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে সিরিজ পাকিস্তানের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পাকিস্তান মহিলা ক্রিকেট দলের বিপক্ষে প্রথম টি২০তে ২৯ রানে হারে বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ও শেষ টি২০’তে ৩৪ রানে হেরে সিরিজই হেরে যায় সালমাবাহিনী। ২-০ ব্যবধানে টি২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয় বাংলাদেশ।

দ্বিতীয় ম্যাচেও টার্গেট কমই ছিল। ১১৫ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৮০ রানেই গুটিয়ে যায় সালমারা। সিরিজ জিতে নেয় স্বাগতিকরা। করাচীতে টস জিতে বাংলাদেশ নারী দলকে ১১৫ রানের লক্ষ্য বেঁধে দেয় পাকিস্তান। কিন্তু সিরিজে সমতা আনার লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় বাংলাদেশ। এক পর্যায়ে ৬৫ রানে ছয় উইকেট হারিয়ে তাদের জয়ের স্বপ্নটাও ম্লান হয়ে যায়। শেষ পর্যন্ত তারা সাত উইকেট হারিয়ে ৮০ রান করতে সমর্থ হয়। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ২৭ রান করে রান আউটের ফাঁদে পড়েন মিডল অর্ডারে নামা রুমানা আহমেদ। অধিনায়ক সালমা খাতুন ১০, রিতু মনি ১৭ ও লতা ম-ল ১০ রানে অপরাজিত থাকেন। পাকিস্তানের সুমাইয়া সিদ্দিক ও নিদা ধর দুটি করে উইকেট নেন। অফস্পিনার সানা মির একটি উইকেট লাভ করেন। এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ছয় উইকেটে ১১৪ রানের স্কোর দাঁড় করায় পাকিস্তান। দলের হয়ে ওপেনার মারিনা ইকবাল ৩৩ ও আলিয়া রিয়াজের ব্যাট থেকে আসে ২০ রান। ওয়ান ডাউনে নামা বিসমাহ মারুফ ৪৪ রানে অপরাজিত থাকেন। বাংলাদেশের নাহিদা আক্তার দুটি উইকেট নেন। অধিনায়ক সালমা খাতুন ও লতা ম-ল একটি করে উইকেট নেন।

প্রথম টি২০তেও টার্গেট খুব বেশি ছিল না। ২০ ওভারে পাকিস্তানের ছুড়ে দেয়া ১২৫ রান করা গেলেই জয় ধরা দিত। কিন্তু ১০০ রানই করতে পারেননি সালমা খাতুনরা। ৯৫ রান কোনমতে তোলা গেছে। দ্বিতীয় টি২০তে আরও ভরাডুবি হয়েছে। এবার ৮০ রানের বেশি করতে পারেনি বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দল।

পাকিস্তান অধিনায়ক সানা মির যে বলেছিলেন, ‘আমরা এ সিরিজটিকে টি২০ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবে নিচ্ছি।’ তারা ভালভাবেই সেই প্রস্তুতি নিয়ে নিয়েছে। বাংলাদেশকে পেয়ে শুধু জয়ই মুঠোতে করে নিচ্ছে। বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক সালমা খাতুন বলেছিলেন, ‘প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ব। এশিয়ান গেমসের পর (২০১৪ সালের গেমস) আর কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলা হয়নি। অবশেষে কিছু প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেট খেলা হবে।’ কিন্তু কোন প্রতিদ্বন্দ্বিতাই গড়া যায়নি। পরপর দুই ম্যাচেই ভরাডুবি হয়েছে। ৪ ও ৬ অক্টোবর যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় ওয়ানডে অনুষ্ঠিত হবে।

স্কোর ॥ পাকিস্তান ইনিংস ১১৪/৬; ওভার ২০ (বিসমাহ ৪৪*, মারিনা ৩৩; নাদিয়া ২/২৭)।

বাংলাদেশ ইনিংস ৮০/৭, ওভার ২০ (রুমানা ২৭, রিতু ১৭; সুমাইয়া ২/৯, নিদা ২/১৫)।

ফল ॥ বাংলাদেশ ৩৪ রানে পরাজিত।

সিরিজ ॥ পাকিস্তান ২ ম্যাচের টি২০ সিরিজে ২-০ ব্যবধানে জয়ী।

ম্যাচসেরা ॥ বিসমাহ মারুফ (পাকিস্তান)। সিরিজসেরা ॥ বিসমাহ মারুফ (পাকিস্তান)।