২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাগেরহাটে ৮ জনকে অচেতন করে সর্বস্ব লুট

স্টাফ রিপোর্টার, বাগেরহাট।। বাগেরহাটের শরণখোলায় একই পরিবারের ৮ ব্যাক্তিকে অচেতন করে নগদ টাকা, স্বর্ণালংকার ও মোবাইল সেট সহ প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র লুটে নিয়েছে দুবৃত্তরা। শুক্রবার গভীররাতে ধানসাগর ইউনিয়নের আমড়াগাছিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, ব্যবসায়ী বাবুল বড়াল ও তার পরিবারের সদস্যরা রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। এদের মধ্যে বাবুলের বৃদ্ধা পিতা যতীন্দ্রনাথ বড়াল ওই রাতে খাবার না খাওয়ায় শনিবার ভোররাতে তার ঘুম ভাংলে ঘরের মধ্যে থাকা আসবাবপত্র ছড়ানো ছিটানো দেখে সবাইকে ডাকতে থাকে। কিন্তু এতে কেউ সাড়া না দিলে প্রতিবেশীরা এগিয়ে আসেন। এক পর্যায় বাবুলের ঘুম ভাংলে তার পেটে মারাত্মক ব্যাথা শুরু হয়। ওই রাতে বাবুল বড়াল (৪৩), চপলা রানী (৩৫), সঞ্জয় (১১), অনিতা রানী (২৫), অরুন মন্ডল (৩৫) ও রনি (৪) সহ ৬ জনকে শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সে ভর্তি করে স্থানীয়রা। বাবুল বলেন, তার ঘরে থাকা নগদ ৫৫ হাজার টাকা, স্বর্ণালংকার, ৭টি মোবাইল সেট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ৬টি হিসাবের খাতা সহ গুরুত্বপূর্ণ মালামাল খোয়া গেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় বখাটে সামসু ওরফে পকেটমার সামসু জড়িত থাকতে পারে বলে তারা সন্দে করছেন।

অপরদিকে, আকস্মিক এমন ঘটনায় ওই এলাকায় হিন্দু সম্প্রদায়ের মাঝে আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। অভিযুক্ত সামসু বলেন, বিষয়টি তিনি শুনেছে, তবে ঘটনার সাথে তিনি জড়িত নয়। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শামীম মুন্সী বলেন, বিষয়টি তিনিও শুনেছেন।

শরণখোলা স্বাস্থ্য কমপে¬ক্সের কর্মকর্তা ডাঃ অসীম কুমার সমাদ্দার বলেন, খাবারের সাথে বিষক্রিয়া থাকায় ওই পরিবারের সকলে অসুস্থ হয়েছে। শরণখোলা থানার অফিসার ইন-চার্জ (ওসি) মোঃ রেজাউল করিম জানান, বিষয়টি য় দেখবেন।

নির্বাচিত সংবাদ