২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লন্ডনে কনজারভেটিভ পার্টির মেয়র প্রার্থী জ্যাক গোল্ডস্মিথ

লন্ডনের মেয়র নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন জ্যাক গোল্ডস্মিথ। খবর ওয়েবসাইটের।

ক্রিকেটার থেকে পাকিস্তানের রাজনীতিতে আসা ইমরান খানের সাবেক স্ত্রী জেমিমার ভাই গোল্ডস্মিথ বর্তমানে লন্ডনের রিচমন্ড পার্ক ও উত্তর কিংস্টোন থেকে নির্বাচিত পার্লামেন্ট সদস্য।

লন্ডনের মেয়র পদে দলীয় প্রার্থী নির্বাচনে করজারভেটিভ দলের নয় হাজার ২২৭ জন ভোট দেন। এর ৭০ শতাংশ ভোট পান গোল্ডস্মিথ।

লন্ডন অ্যাসেম্বলির সদস্য অ্যান্ড্রু বফ, এমইপি সৈয়দ কামাল এবং স্টিফেন গ্রিনহাল্গ গোল্লস্মিথের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিলেন। এর আগে লন্ডনের মেয়র পদে প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির প্রার্থী নির্বাচিত হন সাদিক খান। পাকিস্তানী এক বাস চালকের ছেলে সাদিক বর্তমানে লেবার পার্টি থেকে টুটিংয়ের এমপি। বর্তমান মেয়র বরিস জনসনের জায়গায় বসতে ২০১৬ সালের মে মাসে ভোটে লড়তে হবে প্রার্থীদের। নির্বাচনে গোল্ডস্মিথ ও সাদিক খানের মধ্যেই মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে বলে ধারণা লন্ডনের বাসিন্দাদের অনেকের। এই দুজন ছাড়া মেয়র পদে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন ক্যারোলিন পিজিয়ন, গ্রিনের পক্ষে লড়বেন সিন ব্যেরি এবং ইউকেআইপির মনোন্নয়ন পেয়েছেন পিটার হুইটেল। সাবেক রেসপেক্ট এমপি জর্জ গ্যালওয়েও থাকছেন লন্ডনের মেয়র হওয়ার দৌড়ে।

ইরাকে সংস্কারের দাবিতে ব্যাপক বিক্ষোভ

ইরাকের রাজধানী বাগদাদ ও অন্যান্য নগরীতে শুক্রবার হাজার হাজার লোক ব্যাপক বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। এ সময় দুর্নীতি মোকাবেলা ও সরকারী সেবা উন্নত করার ব্যাপারে সরকারের প্রতিশ্রুত সংস্কার প্যাকেজ বাস্তবায়নে সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয়। রাজনৈতিক সংস্কারের দাবিতে গত জুলাই মাস থেকেই সাপ্তাহিক বিক্ষোভ হচ্ছে। খবর এএফপির।

প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল-আবাদি সংস্কার প্যাকেজ ঘোষণা করলেও তা ধীরগতিতে বাস্তবায়ন করতে থাকায় বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে। রাজধানীর তাহরির স্কয়ারে হাজার হাজার বিক্ষোভকারী ‘বাগদাদ আর বেশি দিন নীরব থাকবে না’ বলে সেøাগান দেয়। শিয়া ধর্মীয় নেতা মোক্তাদা সদরের সমর্থকরা শুক্রবার নিয়মিত বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে যোগ দেয়। নিয়মিত বিক্ষোভকারীদের ওপর ধর্ম নিরপেক্ষ বিভিন্ন গ্রুপের সদস্য, সাংবাদিক, শিল্পী ও সামাজিক কর্মীদের প্রাধান্য রয়েছে।

সদর সমর্থক তরুণ বশির আল-সাদি বলেন, এ বিক্ষোভে আমাদের অংশগ্রহণ অব্যাহত রয়েছে কারণ আবাদির সংস্কারের সুযোগ সীমিত।

জরুরী অবস্থা তুলে নিয়েছে তিউনিশিয়া

তিউনিসিয়ায় গত জুনে এক জিহাদি বন্দুকধারীর হামলায় ৩৮ বিদেশী পর্যটক নিহত হওয়ার পর দেশে আরোপিত জরুরী অবস্থা তুলে নেয়া হয়েছে। শুক্রবার প্রেসিডেন্টের দফতর থেকে এ ঘোষণা দেয়া হয়।

প্রেসিডেন্ট দফতরের এক বিবৃতিতে বলা হয়, গত ৪ জুলাই ঘোষিত জরুরী অবস্থার মেয়াদ ২ অক্টোবর শুক্রবার শেষ হয়েছে। -এএফপি