২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভাড়া বৃদ্ধির নামে বাড়তি অর্থ আদায় বন্ধে পদক্ষেপ নেয়ার দাবি

  • মনিটরিং ব্যবস্থা দেখতে আজ মাঠে নামছেন সড়কমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাস-মিনিবাসের ভাড়া বৃদ্ধির নামে যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি অর্থ আদায় বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানিয়েছে বিভিন্ন সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠন। পাশাপাশি রাজধানীর প্রতিটি রুটের বাসে ভাড়ার তালিকা প্রদর্শনসহ বাড়তি অর্থ আদায় রোধে বিআরটিএ’র পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনারও দাবি জানানো হয়েছে। শনিবার বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে পৃথক বিবৃতিতে এসব দাবি জানানো হয়। এদিকে আজ রবিবার বাড়তি ভাড়া আদায় বন্ধে বিআরটিএ মনিটরিং ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে মাঠে নামছেন সড়ক পরিবহনমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বিদ্যুত ও গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির ফলে ঢাকা ও চট্টগ্রামে বাস-মিনিবাসের ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ১০ পয়সা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ১ অক্টোবর থেকে ঢাকাসহ আশপাশের পাঁচ জেলায় এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়েছে। এসব জেলাসমূহের মধ্যে রয়েছে- মানিকগঞ্জ, গাজীপুর, নরসিংদী, কুমিল্লা ও নারায়ণগঞ্জ। আগামী ৫ অক্টোবর থেকে বাস-মিনিবাসের ভাড়া বাড়বে চট্টগ্রামে। ১ নবেম্বর থেকে দুই সিটিতেই অটোরিক্সারও ভাড়া বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ১ তারিখ থেকে যাত্রীদের কাছ থেকে রাজধানীতে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। নিয়ম অনুযায়ী প্রতি ১০ কিলোমিটারে এক টাকা ভাড়া বৃদ্ধির কথা থাকলেও এই দূরত্বে কমপক্ষে পাঁচ টাকা ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়েছে। ভাড়া নিয়ে রীতিমতো বাড়াবাড়ি চলছে। বিআরটিএ থেকে শুরু করে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় এ ব্যাপারে কোন খোঁজও রাখে না। বিআরটিএ’র তত্ত্বাবধানে রিজিওনাল ট্রান্সপোর্ট কমিটি (আরটিসি) দূরত্ব অনুযায়ী ভাড়া নির্ধারণ করে তালিকা চূড়ান্ত করেনি। সঙ্গতকারণেই বাসে বিআরটিএ’র পক্ষ থেকে কোন তালিকা টানানো হয়নি, যা আছে তা হলোÑ বিভিন্ন পরিবহন কোম্পানির পক্ষ থেকে মনগড়া তালিকা।

বাড়তি ভাড়া আদায় বন্ধের দাবি জাতীয় কমিটির ॥ রাজধানীতে চলাচলরত বাস ও মিনিবাসসহ বিভিন্ন ধরনের গণপরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটি। এই ভাড়া-সন্ত্রাস ঠেকাতে অবিলম্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম জোরদার ও জুলুম করে সাধারণ যাত্রীদের কাছ থেকে বেআইনীভাবে ভাড়া আদায়কারী সংশ্লিষ্ট পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণেরও দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি। শনিবার এক যুক্ত বিবৃতিতে সংগঠনের উপদেষ্টা প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও বিশিষ্ট শ্রমিক নেতা মনজুরুল আহসান খান এবং সাধারণ সম্পাদক আশীষ কুমার দে এ দাবি জানান।

কমিউনিস্ট পার্টির সমাবেশ ॥ বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) ঢাকা কমিটির উদ্যোগে বাসভাড়া বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত বাতিলের দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, বাসভাড়া বৃদ্ধি করে সরকার জনগণের আরেক দফা পকেট কাটার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ঢাকা কমিটির সভাপতি আব্দুল কাদেরের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- সাধারণ সম্পাদক ডাঃ সাজেদুল হক রুবেল, সম্পাদকম-লীর সদস্য জাহিদ হোসেন খান ও বিকাশ সাহা।

স্টপেজ অনুযায়ী বাসভাড়া নির্ধারণের দাবি ॥ অতিরিক্ত ভাড়া আদায় বন্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা এবং এক স্টপেজ থেকে অন্য স্টপেজ অনুযায়ী ভাড়া নির্ধারণ করে তা পত্রিকায় প্রকাশ ও বিভিন্ন বাসস্ট্যান্ডে টানিয়ে দেয়ার দাবি জানিয়েছে নিরাপদ সড়ক ও নৌপথ বাস্তবায়ন জোট। সংগঠনের আহ্বায়ক তুসার রেহমান ও সদস্য সচিব রফিকুল ইসলাম সবুজ এক বিবৃতিতে এ দাবি জানিয়ে বলেছেন, সরকার কিলোমিটারপ্রতি ভাড়া নির্ধারণ করে দিলেও তা মনিটরিংয়ের কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি। ফলে গণপরিবহনগুলো ইচ্ছামতো ভাড়া আদায় করছে। কারণ ঢাকার এক স্টপেজ থেকে অন্য স্টপেজের দূরত্ব কত তা সাধারণ যাত্রীরা কেউই জানেন না। সুতরাং বিআরটিএ’র উচিত রাজধানী ও পার্শ¦বর্তী জেলার বিভিন্ন স্টপেজের দূরত্ব ঠিক করে স্টপেজ অনুযায়ী ভাড়া নির্ধারণ করা। তাহলে যাত্রী হয়রানি বন্ধ করা সম্ভব হবে। বিবৃতিতে ভাড়া-সন্ত্রাস ঠেকাতে অবিলম্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম বাড়ানো ও যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়কারী পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

নির্বাচিত সংবাদ