২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

থিয়েটারেই স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি ॥ সারোয়ার সৈকত

সরোয়ার সৈকত। এই সময়ের একজন নিবেদিত মঞ্চকর্মী। বাংলাদেশের প্রথম সারির থিয়েটারের দল প্রাঙ্গণেমোরে সূচনালগ্ন থেকে যুক্ত তিনি। চলতি বছর থিয়েটারে এক যুগ পূর্ণ করেছেন। মঞ্চে অভিনয়ের পাশাপাশি নির্দেশনাও দিয়েছেন। এছাড়া টিভি নাটক, টেলিফিল্ম এবং চলচ্চিত্রেও অভিনয় করে থাকেন। সাম্প্রতিক সময়ে ব্যস্ততা নিয়ে তার সঙ্গে কথা হয়।

আপনার সাম্প্রতিক ব্যস্ততা প্রসঙ্গে জানতে চাই

সারোয়ার সৈকত : থিয়েটারের দল প্রাঙ্গণেমোরের চলতি প্রযোজনাগুলোতে নিয়মিত অভিনয় করছি। পাশাপাশি দলের নবম প্রযোজনা নূনা আফরোজের রচনা ও নির্দেশনায় ‘আমি ও রবীন্দ্রনাথ’ নাটকের মহড়ায় অংশ নিচ্ছি। গত মাসে কলকাতায় নাটকের শো করে এলাম। এছাড়া দলের ওয়ার্কশপসহ অন্যান্য সাংগঠনিক কাজ করছি।পাশাপাশি একটি প্রাইভেট চ্যানেলে জব করছি এই তো।

থিয়েটারে এক যুগ পূর্ণ করলেন?

সারোয়ার সৈকত : আমি ২০০৩ সালে থিয়েটারের সঙ্গে যুক্ত হই। এক যুগ পূর্ণ করা থিয়েটারের জন্য খুব বড় কোনো বিষয় না। তবে আমার অনেক ভাল লাগছে। থিয়েটারটা দীর্ঘমেয়াদি প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে করে যেতে হয়। থিয়েটার আমার ভাল লাগার জায়গা, ভালবাসার জায়গা। আমি এখানে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি। এখন পর্যন্ত সক্রিয়ভাবে কাজ করে যাচ্ছি এটাই বড় প্রাপ্তি।

নাটক করতে দলের সঙ্গে ভারতেও গিয়েছিলেন?

সারোয়ার সৈকত : আমাদের দলের নিয়মিত কয়েকটি প্রযোজনা নিয়ে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বহরমপুর, রঘুনাথগঞ্জ, হাওড়া, কল্যাণী, কলকাতা, শিলিগুড়ি, মুম্বাই ভ্রমণ করেছি। দেশের বাইরে শো করতে গেলে অন্যরকম অনুভূতি কাজ করে।

আপনিতো টিভি নাটক ও চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন?

সারোয়ার সৈকত : ২০০৪ সালে শহীদুল ইসলাম খোকন পরিচালিত ‘টাকা’ চলচ্চিত্রে প্রথম অভিনয় করি। এছাড়া বেশ কিছু নাটক এবং সরকারি অনুদানে নির্মিত শাহ আলম কিরণ পরিচালিত ‘৭১-এর মা জননী’ চলচ্চিত্রে একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছি। মাঝে বিশিষ্ট চলচ্চিত্র পরিচালক বেলাল আহমেদ ও বিশিষ্ট নাট্যপরিচালক অনন্ত হিরার প্রধান সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করার সৌভাগ হয়েছে।

নির্দেশনার কোন খবর?

সারোয়ার সৈকত : নির্দেশক হিসেবে নিজেকে যোগ্য মনে করি না। তবে আমি দলের কর্মশালা প্রযোজনা হিসেবে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘পোস্টমাস্টার’ও আমার লেখা ‘উনমানুষ’ নামে দুটি নাটক নির্দেশনা দিয়েছি। এছাড়া গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের আয়োজনে মৌলবাদবিরোধী আন্দোলনের সময় একটি পথ নাটক নির্দেশনা দিয়েছি। তবে আমি পূর্ণাঙ্গ মঞ্চ নাটক নির্দেশনা দেয়ার জন্য নিজেকে তৈরি করছি।

আপনিতো থিয়েটার বিষয়ক একটি পত্রিকার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন?

সারোয়ার সৈকত : হ্যাঁ ‘মঞ্চপত্র’ নামে ওই পত্রিকাটি এক সময় বিশিষ্ট অভিনেতা খালেদ খান সম্পাদনা করতেন। তখন তা ছিল ত্রৈমাসিক। আমি মাসিক ট্যাবলয়েট পত্রিকা হিসেবে এর বিভিন্ন বিষয় সমন্বয় করি। এর প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশ অনন্ত হিরা। প্রতিমাসে এ পত্রিকায় বেশকিছু সংখ্যা ভারত যেত।

তবে গ্রহণযোগ্যতা থাকা সত্বেও পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে পত্রিকাটি এখন নিয়মিত বের করা সম্ভব হচ্ছে না। -সাজু আহমেদ