২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লালমনিরহাটে বাল্যবিয়ের দায়ে বর-কনের বাবার কারাদণ্ড

নিজস্ব সংবাদদাতা, লালমনিরহাট, ৩ অক্টোবর ॥ শুক্রবার গভীর রাতে বাল্যবিয়ে আয়োজন করায় বর ও কনের বাবার কারাদ- দেয়া হয়েছে। সাজাপ্রাপ্তদের শনিবার সকালে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শফিকুল ইসলাম লালমনিরহাট পৌরসভার পূর্ব থানাপাড়া এলাকার আমির হোসেনের ছেলে কনের বাবা জয়নাল আবেদীন ও একই এলাকার মদনের চক গ্রামের হাসান আলীর ছেলে বর দুলু আলী (২২)।

সদর থানার ওসি জানান, লালমনিরহাট সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী স্মৃতি আক্তার (১৪) বাল্যবিয়ের আয়োজন করে তার পরিবার। খবর পেয়ে শুক্রবার সদর থানা পুলিশ বিয়ে বাড়িতে অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশ দেখে সবাই পালিয়ে যায়। তবে কনের বাবা জয়নাল আবেদীন ও বর দুলু আলীকে পুলিশ আটক করে।

পার্বতীপুরে স্কুলছাত্রী

নিজস্ব সংবাদদাতা, পার্বতীপুর থেকে জানান, পার্বতীপুরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে পঞ্চম শ্রেণীর এক ছাত্রী। শহর থেকে প্রায় ৬ কিলোমিটার দূরে মনম্মথপুর ইউনিয়নের হরিরামপুর ভাটিপাড়া গ্রামে কনের পিত্রালয়ে শুক্রবার সন্ধ্যায় এ ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশ আটক করেছে বর আসিকুর রহমান (১৯ ) ও সহযোগী ইয়াকুল ইসলামকে (৩০)। গ্রামবাসী ও পুলিশের সূত্র মতে এ গ্রামের শফিকুল ইসলামের পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রীর সঙ্গে চ-িপুর ইউনিয়নের জাহানাবাদ মামুনপাড়ার মৃত মাহফিজুল ইসলামের ১৯ বছর বয়সী ছেলে আসিকুর রহমানের বিয়ের দিন ঠিক হয়। বিকেলে বরযাত্রীরা কনের বাড়ি এলে সহকারী কমিশনার ক্ষমতাপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওঁৎপেতে থাকে। এ সময় কনেসহ বাড়ির লোকজন ও বরযাত্রীরা পালিয়ে যায়। প- হয়ে যায় বিয়ের সকল আয়োজন।

চুয়াডাঙ্গায় সালিশে হামলায় আহত যুবকের মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, চুয়াডাঙ্গা, ৩ অক্টোবর ॥ জীবননগর উপজেলার পুরাতন চাকলা গ্রামে পারিবারিক কলহের ঘটনায় সালিশে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ইয়াসিন আলী (২৫) মারা গেছেন। এ ঘটনায় ১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। আটক করা হয়েছে আশাদুল ইসলাম (১৯) নামের এক যুবককে। শনিবার সকালে নিহতের লাশ চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্ত করা হয়েছে।

জানা গেছে, ওই গ্রামের মৃত হযরত আলীর ছেলে ইয়াসিন আলীর ঘর থেকে টাকা চুরির ঘটনায় তার স্ত্রী শাকিলা খাতুনকে দোষারোপ করা হয়। এ ঘটনায় গত বুধবার বিকেলে একটি সালিশ বসে। এ সময় দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনার একপর্যায়ে সংঘর্ষ হয়। এ সংঘর্ষে ইয়াসিন আলী আহত হন। ঢাকায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার রাত ১০টায় মারা যান ইয়াসিন আলী।

যাত্রী নিয়ে টেকনাফ থেকে মিয়ানমারে বোট চলাচল স্বাভাবিক

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ টেকনাফ স্থলবন্দর থেকে বর্ডার পাশের যাত্রী নিয়ে মিয়ানমারে বোট যাতায়াত স্বাভাবিক হয়েছে। মঙ্গলবার টেকনাফ স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন জেটি ঘাট থেকে বরইতলীর ইসমাইল মাঝি বর্ডার পাশের যাত্রী নিয়ে মংডু যান। জেটিতে বিশ্রামের সময় মিয়ানমার বিজিপির এক সদস্য তাকে অহেতুক মারধর করে। এ নিয়ে টেকনাফ স্থল বন্দর থেকে বর্ডার পাশের যাত্রী নিয়ে বৃহস্পতিবার কোন বোট মিয়ানমারে যায়নি। তবে মিয়ানমার থেকে যাত্রী নিয়ে বাংলাদেশে বোট যাতায়াত স্বাভাবিক ছিল। টেকনাফ স্থলবন্দর অভিবাসন কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম সবুজ জানান, বোটের মাঝিকে মারধরের বিষয়টি দেশটির উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে পত্রের মাধ্যমে জানানো হলে মিয়ানমারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ মংডু জেটি থেকে ওই বিজিপি সদস্যকে প্রত্যাহার করে নিয়েছে। ফলে বর্তমানে যথা নিয়মে বাংলাদেশ থেকে বর্ডার পাশের যাত্রীদের নিয়ে মিয়ানমারে বোট যাতায়াত স্বাভাবিক রয়েছে।