২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বরগুনা বাজারে ইউনিয়ন কমপ্লেক্স নির্মাণের দাবী

বরগুনা বাজারে ইউনিয়ন কমপ্লেক্স নির্মাণের দাবী

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী (বরগুনা)॥ রবিবার সকালে বরগুনার তালতলী উপজেলার কড়াইবাড়ীয়া বাজারে ইউনিয়নের কয়েক হাজার জনগন বাজারে ইউনিয়ন পরিষদের নির্ধারিত স্থানে কমপ্লেক্স নির্মাণের দাবী ও চেয়ারম্যান ইউপি সদস্য রেদওয়ান সরদারকে মারধর করার প্রতিবাদে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন এবং বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

জানাগেছে, উপজেলার কড়াইবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স কড়াইবাড়িয়া বাজারে নির্মাণের জন্য ওই বাজারের বাসিন্দা আঃ মন্নান তালুকদার ৩৩ শতাংশ জমি নামমাত্র মুল্যে ইউনিয়ন পরিষদের নামে দলিল দিয়েছে। ইউপি চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মাষ্টার তার স্বীয় স্বার্থে ওই জমিতে কমপ্লেক্স নির্মাণ না করে বাড়ী সংলগ্ন হেলেঞ্চাবাড়ীয়া গ্রামে কমপ্লেক্স নির্মাণের অশুভ তৎপরতা শুরু করেছে। এ ঘটনা ফাঁস হয়ে পরলে জনগন বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠে। শনিবার রাতে এ ঘটনায় সুষ্টু সমাধানের জন্য কড়াইবাড়ীয়া বাজারে স্থানীয় লোকজন নিয়ে চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মাষ্টার সভা আহবান করেন। ওই সভায় কমপ্লেক্স নির্মাণের স্থান নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায় ইউপি সদস্য রেদওয়ান সরদারকে চেয়ারম্যান পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এতে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে তালতলী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। ওই রাতে আহত ইউপি সদস্যকে আমতলী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনা গ্রামের পর গ্রামে ছড়িয়ে পরলে রবিবার সকালে হাজার হাজার গ্রামবাসী কড়াইবাড়িয়া বাজারে ছুটে আছে। সকাল ১১ টায় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করেছে। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন আঃ মন্নান তালুকদার, আবুল বাশার তালুকদার, আঃ আজিজ খান, ইমাম হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা আবু হানিফ, গোলাম মোস্তফা তালুকদার, সাজেদা বেগম প্রমুখ। বক্তা আঃ মন্নান বলেন কড়াইবাড়িয়া বাজারে জনগনের বৃহত্তর স্বার্থে কমপ্লে¬ক্স নির্মাণের জন্য ৩৩ শতাংশ জমি নামমাত্র মুল্যে বিক্রি করি। ওই জমিতে চেয়ারম্যান কমপ্লেক্স নির্মাণ না করে তার স্বার্থে বাড়ী সংলগ্ন স্থানে নির্মাণের ষড়যন্ত্র করছে। আবুল বাশার বলেন জনগনের প্রানের দাবী কমপে¬ক্স কড়াইবাড়িয়া বাজারে নির্মাণ করতে হবে। মহিলা আ’লীগের সভানেত্রী সাজেদা বেগম বলেন চেয়ারম্যানের স্বেচ্ছাচারিতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় ইউপি সদস্য রেদওয়ান সরদারকে চেয়ারম্যান লাঠিপেটা করে জখম করেছে। আমরা ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। মানববন্ধন শেষে গ্রাম বাসীরা বাজারে চেয়ারম্যানের বিচারের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল করেছে।

আহত ইউপি সদস্য রেদওয়ান সরদার জানান চেয়ারম্যান তার নিজের স্বার্থে তার বাড়ী সংলগ্ন স্থানে ইউপি ভবন নির্মাণ করতে চায়। এর প্রতিবাদ করতে গেলে চেয়ারম্যান আমাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে।

ইউপি চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মদ মাষ্টার জানান ইউপি পরিষদের নামে কড়াইবাড়িয়া বাজারে কোন জমি নেই। এ কারনে আমি আমার বাড়ী সংলগ্ন জমি দিয়ে কমপ্লেক্স নির্মাণের বিশ্ব ব্যাংকে অর্থায়নে প্রজেক্ট বাস্তবায়নের চেষ্টা করছি।