২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যশোরে স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করল ছাত্রদল ও ছাত্রলীগ নেতা

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ চৌগাছায় ছাত্রদল ও ছাত্রলীগ নেতারা এক স্কুলছাত্রীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণ করেছে। রবিবার বিকেলে চৌগাছা উপজেলা পরিষদ এলাকার একটি বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার শিকার মেয়েটির বাড়ি হায়াতপুর গ্রামে। সে পাতিবিলা হাজী শাহজাহান আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্রী। এ ঘটনায় পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে। এরা হলো, চৌগাছা পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড ছাত্রদল সভাপতি উজ্জ্বল হোসেন, পৌর কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মজিদের ছেলে পৌর ছাত্রলীগ নেতা সানি ও ছাত্রলীগ কর্মী শিমুল।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রবিবার বিকেলে ওই স্কুলছাত্রী তার চাচাত বোন ও বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে চৌগাছা বাজারে বেড়াতে আসে। পরে মেয়েটির চাচাত বোন কেনাকাটা করতে যায়। আর তারা দু’জন পাশেই চৌগাছা শাহাদৎ পাইলট স্কুলের খেলার মাঠে বসে গল্প করছিল। এ সময় পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড ছাত্রদল সভাপতি উজ্জ্বল হোসেন, পৌর কাউন্সিলর ও আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল মজিদের ছেলে পৌর ছাত্রলীগ নেতা সানি, ছাত্রলীগ কর্মী শিমুল ও আলামিন মেয়েটির বন্ধুটিকে মারপিট করে তার মোবাইল কেড়ে নিয়ে তাড়িয়ে দেয়। পরে তারা মেয়েটিকে জোর করে উপজেলা পরিষদের পার্শ্ববর্তী আলামিনের ভাড়া করা বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ শুরু করলে মেয়েটির চিৎকারে স্থানীয় জনতা থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা ৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে তার স্বাস্থ্যের অবনতি হলে সন্ধ্যায় যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ছাত্রদল নেতা উজ্জ্বল, ছাত্রলীগ নেতা সানি ও শিমুলকে গ্রেফতার করে। তারা সবাই পৌর এলাকার বাসিন্দা।

চৌগাছা থানার সেকেন্ড অফিসার শরিফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরা মেয়েটিকে গণধর্ষণ করে। খবর পেয়ে পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করেছে। তাকে যশোর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সেখানে তার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হবে।