২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিপিএলের আগে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজ!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ নিরাপত্তা ঝুঁকির অজুহাত দেখিয়ে বাংলাদেশ সফরে ক্রিকেট সিরিজ খেলতে আসেনি অস্ট্রেলিয়া। অক্টোবরে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ হওয়ার কথা ছিল। সিরিজ না হওয়ায় এ সময়টায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের বিরতি পড়ে গেছে। সেই বিরতি ঘোচাতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) চেষ্টা করছে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে সিরিজ খেলতে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল-টি২০) আগেই সেই সিরিজ করতে চাচ্ছে বিসিবি। বিসিবির পরিচালক ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসই এমন তথ্য দিয়েছেন।

জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের এমনিতেই সিরিজ আছে। সেটি অবশ্য এ বছর নয়, ২০১৬ সালের জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে। তখন টেস্ট, ওয়ানডে ও টি২০ সিরিজ রয়েছে। বিসিবি চাইছে সিরিজের যে কোন একটি ফরমেট বিপিএলের আগে যদি আয়োজন করা যায় তাহলে ভাল হয়।

জালাল ইউনুস জানিয়েছেন, ‘এই মুহূর্তে আমাদের একটা গ্যাপ তৈরি হয়েছে। আর আমাদের পরবর্তী সিরিজ জিম্বাবুয়ের সঙ্গে। তাই আমরা এই নবেম্বরে চেষ্টা করবো কিছু খেলা এর মাঝে খেলে ফেলতে। এখন আমরা জিম্বাবুয়ের সঙ্গে চিঠি চালাচালি করছি। দেখা যাক কি হয়। এখনও ঠিক হয়নি। টেস্ট অথবা ওয়ানডে যে কোন একটা এগিয়ে নিয়ে আসতে পারি।’ যদি জিম্বাবুইয়ে রাজি হয়ে যায় তাহলে ভালই হয়। জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা যে সেই আগস্ট থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছে না, আবার তাতে ফিরবে। কথা উঠেছে, বাংলাদেশের খেলা না হলেও নিরপেক্ষ কোন ভেন্যুতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে খেলা যায় কিনা। মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান এমন বিষয়কে উড়িয়ে দিয়েছেন। বলেছেন, ‘বাংলাদেশের নিরপেক্ষ ভেন্যুতে যাওয়ার মত এখনও কোন রকম পরিস্থিতি তৈরি হয়নি যে বাংলাদেশের ক্রিকেট এখন অন্য কোন দেশে নিয়ে খেলতে হবে। আমি মনে করি এমন পরিস্থিতি কোথাও নেই। আমি এতে সম্পূর্ণ দ্বিমত পোষণ করি, এমন কিছু নাই, আগামীতেও নাই। আশাকরি এটা সাময়িক একটা পরিস্থিতি। এটা হয়তো এক মাসের মধ্যেই ঠিক হয়ে যাবে। সাধারণভাবে আগের মতই যে দলগুলোর আসার কথা তারা সেভাবেই আসবে।’

অস্ট্রেলিয়া সিরিজ স্থগিত করেছে। কিন্তু কবে বাংলাদেশ সফরে আসবে তা বলেনি। অস্ট্রেলিয়ার যে সূচী তাতে আগামী বছরের সেপ্টেম্বরের আগে কোন সম্ভাবনাই নেই। জালাল ইউনুস তা অনুধাবন করতে পেরেছেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার কথা আমি বললাম যে ওদের সিরিজ আছে নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। তারা যদি সমঝোতা করে আগে বাংলাদেশে আসতে চায় তাহলে সম্ভব। এছাড়া আগামী সেপ্টেম্বরের আগে আমি কোন স্পট দেখছি না। ওদের পরের সিরিজ নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে। এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ইন্ডিয়া। অনেকগুলো তাদের খেলা আছে। সিডিউলটা তাদের খুব লম্বা। এরপর তারা বিশ্রাম নিবে নাকি আমাদের সঙ্গে খেলবে এটাও একটা প্রশ্নের ব্যাপার আছে। ফাঁকা থাকলেই যে তারা আমাদের সঙ্গে খেলবে এটা এই মুহূর্তে বলা খুবই মুশকিল।’ বিপিএল ২০ নবেম্বরের আগে শুরু হবে না। এরআগে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে বিসিবি একটি সিরিজ আয়োজন করতে চাইছে।