২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বরিশালে ভিজিডি ভিজিএফ চাল পায়নি দুস্থরা

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ জেলার উজিরপুর উপজেলার সাতলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রিয়াজ উদ্দিন সোহাগ মোল্লার বিরুদ্ধে ভিজিডি ও ভিজিএফ কার্ডের চাল আত্মসাত, দুর্নীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ পাওয়া গেছে। যে কারণে ওই ইউনিয়নের অসহায়, দুস্থ পরিবারগুলো এখনও ঈদ-উল-আযহাসহ বকেয়া তিন মাসের চাল হাতে পায়নি।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে রবিবার সকালে ঘটনা তদন্তে সরেজমিনে পরিদর্শন করেন উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা দৌলাতুন নেছা ও সমবায় অফিসার হেমায়েত উদ্দিন। তারা সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত সাতলা ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিডি কার্ডধারী অসহায় দুস্থ ও সাতলা অঞ্চলের গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে চেয়ারম্যানের দুর্নীতির তদন্ত করেন। শেষে তদন্তকারী কর্মকর্তারা অভিযোগের সত্যতা পেয়েছেন বলে সংবাদকর্মীদের জানিয়েছেন। ভুক্তভোগী মমতাজ বেগম, রাজিয়া বেগম, পুষ্প কীর্তনীয়া, সুমতি ম-ল, পুতুল রানী বাড়ৈসহ সর্বমোট ১৯৬ ভিজিডি কার্ডধারী অভিযোগ করেন, গত মে মাসের পর থেকে আজ পর্যন্ত তারা কোন চাল পাননি। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত এপ্রিল মাসে চেয়ারম্যান সোহাগ মোল্লা উপজেলা খাদ্য গুদাম থেকে দুই মাসের চাল উত্তোলন করেছেন। ঈদ-উল-আযহার পূর্বে জুন, জুলাই ও আগস্ট মাসের বকেয়া চাল উত্তোলনের জন্য সরকারীভাবে প্রতি ইউনিয়নে ছাড়পত্র প্রদান করা হয়। চেয়ারম্যান সোহাগ মোল্লা ঈদের কয়েকদিন পূর্বে খাদ্য গুদাম থেকে এক মাসের চাল উত্তোলন করেছেন।

তদন্তকারী অফিসার দৌলাতুন নেছা ও হেমায়েত উদ্দিন বলেন, আগামী ৮ অক্টোবরের মধ্যে অসহায় দুস্থ পরিবারের মধ্যে সঠিকভাবে তিন মাসের ৩০ কেজি করে ৯০ কেজি চাল পৌঁছে দিতে চেয়ারম্যান মুচলেকা দিয়েছেন। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে চাল বিতরণ করা না হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও তারা উল্লেখ করেন।