১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাঙ্গাবালীতে বেশি দামে সার বিক্রির অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, গলাচিপা ॥ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার চরমোন্তাজ ইউনিয়নে কৃত্রিম সঙ্কট সৃষ্টি করে ইউরিয়া সার বেশি দামে বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া, ইউরিয়া সারে সরকারের দেয়া ভর্তুকি সুবিধা কেবলই কাগজে, বাস্তবে নেই। এ সুবিধা কৃষকদের পাওয়ার কথা থাকলেও ভর্তুকির টাকা চলে যাচ্ছে আমদানিকারক, ডিলার ও খুচরা বিক্রেতাদের পকেটে। স্থানীয় কৃষি দফতর সূত্রে জানা গেছে, উপজেলায় আগস্ট, সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে ৯২০ মেট্রিক টন সার বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। প্রতি বস্তা সার ৮ শ’ টাকায় ক.ষকদের কাছে বিক্রি করার কথা থাকলেও চরমোন্তাজ ইউনিয়নে তা সাড়ে ৮ শ’ থেকে ৯ শ’ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। প্রতি বস্তা সারে ৫০ থেকে ১ শ’ টাকা বেশি নিচ্ছে খুচরা সার বিক্রেতারা। কৃষকদের অভিযোগ, বেসরকারী আমদানিকারকদের সরকার ভর্তুকির সার বিক্রির অনুমতি না দিলেও তারা খুচরা ব্যবসায়ীদের কাছে সার বিক্রি করছে। ডিলার ও খুচরা সার বিক্রেতারা সরকার নির্ধারিত দামের চেয়ে বেশি দামে কৃষকদের কাছে সার বিক্রি করছে। চরমোন্তাজ ইউনিয়নের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা রাকিবুল হাসান জানান, সার যখন কম থাকে তখনই খুচরা বিক্রেতারা কৃষকদের কাছে বেশি দামে বিক্রি করে। এ বিষয়ে গলাচিপা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা (রাঙ্গাবালীর অতিরিক্ত দায়িত্বে) আবদুল মন্নান জানান, নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে বেশি দামে সার বিক্রি করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।