১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিএনপিকে জড়িয়ে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য দুঃখজনক ॥ রিপন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশে দুই বিদেশী নাগরিক হত্যার ঘটনায় বিএনপিকে জড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বক্তব্য একেবারেই অনভিপেত ও দুঃখজনক বলে মনে করছে বিএনপি। রবিবার দুপুরে নয়াপল্টন বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলটির মুখপাত্র ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, দুই বিদেশী হত্যার বিষয়টি যখন তদন্ত পর্যায়ে আছে, তখন প্রধানমন্ত্রী গণভবনে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন দেশে পরপর ২ বিদেশী নাগরিক হত্যাকা-ের সঙ্গে নাকি বিএনপি-জামায়াত জোট জড়িত। শাসক দলের প্রধানের এমন বক্তব্যের আমরা নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

রিপন বলেন, একদিকে প্রধানমন্ত্রী বলছেন, ২ বিদেশী হত্যার বিষয়টি তদন্তাধীন। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী এ ঘটনায় বিএনপিকে জড়িয়ে কথা বলা অত্যন্ত দুঃখজনক। বিএনপি প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে দায়িত্বশীল বক্তব্য আশা করে। রিপন বলেন, ইতালীয় ও জাপানী নাগরিক হত্যার দায় প্রাথমিকভাবে আইএস নামের একটি সংগঠন স্বীকার করেছে। প্রধানমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলনে নিজেও বলেছেন, শিকাগো থেকে একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসে ইতালীয় নাগরিক হত্যার দায় স্বীকার করেছে। তাই এর সত্যতা যাচাই করার প্রশ্ন আছে। কারণ, এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীসহ কেউ নিশ্চিত নন। যদিও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দেশের জনগণ ও উন্নয়ন সহযোগীদের আশ্বস্ত করেছেন, বাংলাদেশে আইএসের কোন অস্তিত্ব নেই। তারপরও আইএসের নামটি বার বার আসছে। তাই আমরা মনে করি, বিষয়টি খতিয়ে দেখা দরকার। আমরা দুই বিদেশী নাগরিক হত্যার বিষয়ে দ্রুত তদন্ত করে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

রিপন বলেন, রংপুরে জাপানী নাগরিক হত্যার পর রংপুর জেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান লাকু, রংপুর মহানগর বিএনপির নেতা রাশেদুন্নবী বিপ্লবকে সাদা পোশাকে র‌্যাবের ধরে নিয়ে যাওয়ার ঘটনা দেশের জন্য আশঙ্কাজনক। চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে তাদের আদালতে হাজির না করাটা উদ্বেগজনক। আমরা অবিলম্বে তাদের পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দেয়ার দাবি জানাচ্ছি। তিনি বলেন, আনিসুর রহমান লাকুর বাড়ি র‌্যাব-১৩ কার্যালয়ের পাশেই। তাকে ধরে নিয়ে যাওয়ার সময় লাকুর পরিবারের সদস্যরা র‌্যাবের একজনকে চিনতে পারে। পরে র‌্যাব স্বীকার করে তাদের গ্রেফতারের কথা।

আসাদুজ্জামান বলেন, পুলিশের বিভিন্ন সংস্থা প্রায়ই সাদা পোশাকে লোকজনকে তুলে নিয়ে যায়। কিন্তু সাদা পোশাকে র‌্যাবের লোকজনও মানুষকে তুলে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি বেআইনী। এটাকে কোনভাবেই আইনসম্মত পদক্ষেপ বলে আমরা মনে করি না। আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর এ ধরনের আইনবহির্ভূত কর্মকা-কে কখনও সমর্থন করি না। তাই আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আইনবহির্ভূত কর্মকা- থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানাই।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক হারুন অর রশীদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, যুব বিষয় সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ-দফতর সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম, আসাদুল করীম শাহিন, দলের নেতা তকদির হোসেন জসিম, এলবার্ট পি কস্টা প্রমুখ।

খালেদা জিয়া সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য কুরুচিপূর্ণ ॥ সন্ধ্যায় নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আরেকটি সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপির মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মন্তব্য কুরুচিপূর্ণ। উল্লেখ্য, দুপুরে গণভবনের সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘খালেদা জিয়া আওয়ামী লীগে প্রেমিক খুঁজে পেলে ফালুর কী হবে?

সংবাদ সম্মেলনে রিপন বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সনকে যে মন্তব্য করেছেন, তা খুবই অরুচিকর। আমরা প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্যের নিন্দা জানাই। প্রধানমন্ত্রী দেশের অন্যতম একটি বৃহৎ রাজনৈতিক দলেরও প্রধান। তার কাছ থেকে নতুন প্রজন্ম, তরুণ-যুব সম্প্রদায় থেকে শুরু করে দেশের আপামর মানুষ রুচিবোধসম্পন্ন দায়িত্বশীল বক্তব্য প্রত্যাশা করেন। কিন্তু তিনি যখন দেশের অপর আরেকটি বিরোধী দলের প্রধান যিনি দেশের তিনবার নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তার সম্পর্কে যখন অরুচিকর মন্তব্য করেন তখন সরকারপ্রধানের দৃষ্টিভঙ্গি-রুচি নিয়ে মানুষ শুধু হতাশই হন না দুঃখ পান এবং লজ্জিত হন। এতে রাজনীতি ও রাজনৈতিক নেতৃত্বই লজ্জিত হয়। এই অপরাজনীতি দেশের ভবিষ্যত রাজনীতিকে সঙ্কটের মধ্যে ফেলে দেবে।

সরকারের দায়িত্বহীন উক্তি বিদেশী হত্যার ঘটনা তদন্তে বাধা সৃষ্টি করবেÑ ফখরুল ॥ বিদেশী নাগরিক হত্যার ঘটনা নিয়ে সরকারের উচ্চপর্যায়ের লোকদের দায়িত্বহীন উক্তি ২ বিদেশী হত্যার ঘটনা তদন্তে বাধা সৃষ্টি করবে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। রবিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এ অভিযোগ করেন। তিনি সরকারী দলের নেতাদের দায়িত্বহীন উক্তির কারণে প্রকৃত আততায়ীকে চিহ্নিত করতেও বাধার সম্মুখীন হতে হবে। তিনি সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে দুই বিদেশী নাগরিককে হত্যার আততায়ীদের গ্রেফতার করে শাস্তি দেয়ার দাবি জানাচ্ছি।

ফখরুল বলেন, ২ বিদেশী নাগরিক হত্যার ঘটনার নিন্দা জানাচ্ছি। এ ধরনের হত্যাকা- প্রমাণ করে দেশে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অত্যন্ত নাজুক। সরকারের উচ্চপর্যায়ের নেতৃবৃন্দের দায়িত্বহীন উক্তি কেবল তদন্তের ব্যাঘাত সৃষ্টি করবে না বরং প্রকৃত আততায়ীকে চিহ্নিত করতেও বাধার সম্মুখীন হতে হবে।

নির্বাচিত সংবাদ