২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দেশে সুশাসনের অভাব- এরশাদ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সরকারের সমালোচনা করে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি খুবই নাজুক। মায়ের পেটেও শিশুরা এখন আর নিরাপদ নয়। সময় হলেই জাতীয় পার্টি মন্ত্রিসভা থেকে বেরিয়ে আসবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর এই বিশেষ দূত।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর বনানীতে পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সহ দেশের সার্বিক অবস্থা তুলে ধরতে বিরোধী দলের পক্ষ থেকে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। যদিও এতে দলের ২ থেকে তিনজন এমপি ছাড়া কেউ ছিলেন না। এছাড়া এই সংবাদ সম্মেলনে বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদও ছিলেন অনুপস্থিত।

এরশাদ বলেন, এখনও সময় হয়নি, আর সময় হলেই জাতীয় পার্টি মন্ত্রিসভা থেকে বেরিয়ে আসবে। যথাসময়ে আমিও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূতের পদ থেকে পদত্যাগ করবো। সত্যিকারের বিরোধীদল হতে গেলে সরকার থেকে বেরিয়ে আসতে হবে এমন উপলব্দির কথাও সাংবাদিকদের কাছে তুলে ধরেন সাবেক এই স্বৈরশাসক।

দেশে আইএস নেই দাবি করে তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ জঙ্গিবাদে বিশ্বাস করে না। জাপা চেয়ারম্যান বলেন, বিচারহীনতার কারণে দেশে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। এখানে বিদেশি নাগরিকেরও নিরাপত্তা নেই। এই দেশে মায়ের পেটেও শিশুরা নিরাপদ নয়। এই সরকার আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হয়েছে।

বিদেশি নাগরিক হত্যার ঘটনায় বিএনপি জড়িত আছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে এরশাদ বলেন, ইতালি এবং জাপানের নাগরিক নিহতের ঘটনায় বিএনপি জড়িত আছে বলে সরকারী দলের লোকজন সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। এ বিষয়ে তারাই ভালো বলতে পারবেন। আমি কোনো মন্তব্য করতে চাই না।

আইন-শৃঙ্খলার বিষয়ে সরকারকে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, সমস্ত অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করুন। চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করুন। সাধারণ মানুষকে স্বস্তি দিন। অন্যথায় গণতন্ত্র কাগজের পাতায় থাকবে, বাস্তবে নয়।

এরশাদ বলেন, শুধু দেশের মানুষই নয়, আজ বিদেশিরাও দেশে নিরাপদ নয়। নিরাপত্তার শঙ্কায় বিদেশি গার্মেন্টস ব্যবসায়ীরাও দেশে আসতে ভয় পাচ্ছে। দেশে চলছে সুশাসনের অভাব ও বিচারহীনতার সংস্কৃতি।

বর্তমান সরকারের আমলে প্রশাসনের ব্যাপক দলীয়করণ হচ্ছে দাবি করে সরকারের প্রতি তা বন্ধের আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত বলেন, প্রশাসনে দলীয়করণ বন্ধ করুন। প্রশাসনের দলীয়করণের কারণেই এ ধরনের ঘ্টনা ঘটছে।

মেডিকেল কলেজ ভর্তিতে পুনরায় পরীক্ষা নেয়ার দাবি জানিয়ে এরশাদ বলেন, নকল করে কেউ ডাক্তার হবে, এটা কাম্য নয়। তাই আবার পরীক্ষা হলে ভালো ছাত্ররা ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবে। সংবাদ সম্মেলনে জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলু, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।