২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যুক্তরাষ্ট্রে পূর্ব উপকূলীয় অঞ্চলে রেকর্ড বৃষ্টিপাত

  • আট জনের প্রাণহানি

যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূলীয় অঞ্চলের সাউথ ক্যারোলাইনা অঙ্গরাজ্যে প্রবল বৃষ্টিপাত হয়েছে, এতে দক্ষিণ ও উত্তর ক্যারোলাইনায় অন্তত আটজন মারা গেছে। এই প্রবল বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাসে চলমান বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে আশঙ্কায় অঙ্গরাজ্যটিতে আগেই জরুরী অবস্থা ঘোষণা করেছিল মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। খবর এফপি ও ওয়েবসাইটের।

যে পরিমাণ বৃষ্টিপাত হয়েছে তা এক হাজার বছরে একবারই হতে পারে বলে মন্তব্য করেছে সাউথ ক্যারোলাইনার গবর্নর নিকি হ্যালে। ক্যারিবীয় অঞ্চলের ঘূর্ণিঝড় জোয়াকুইনের প্রভাবে শুক্রবার থেকে সাউথ ক্যারোলাইনার কেন্দ্রীয় এলাকাগুলোতে ৫০ সেন্টিমিটারেরও বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় আবহাওয়া বিভাগ। বৃষ্টির ধারা কমে আসতে শুরু করলেও সোমবার সারাদিনে আরও পাঁচ থেকে ১৫ সেন্টিমিটার বৃৃষ্টিপাত হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে সাউথ ক্যারোলাইনার রাষ্ট্রীয় আবহাওয়াবিদ। অঙ্গরাজ্যের কনগারি নদীর পানি ১৯৩৬ সালের পর থেকে সর্বোচ্চ উচ্চতায় পৌঁছেছে জানিয়ে গবর্নর নিকি স্থানীয় বাসিন্দাদের ‘বাড়িতে থাকলে বাড়িতেই অবস্থান’ করার পরামর্শ দিয়েছেন। এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘বাইরে গিয়ে ছবি তোলার বিষয় না এটি।’ বৃষ্টিপাতজনিত কারণে সাউথ ক্যারোলাইনায় ছয়জন মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে, এদের মধ্যে চারজন সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে। নর্থ ক্যারোলাইনায় আরও দুজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্মকর্তারা।

প্রবল বৃষ্টিপাতে সৃষ্ট বন্যায় অঙ্গরাজ্যের চার্লসটাউন ও জর্জটাউনের মধ্যবর্তী উপকূলীয় মহাসড়ক ডুবে গেছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। নয় হাজার বাসিন্দার জর্জটাউনের অধিকাংশ এলাকাই পানির নিচে তলিয়ে গেছে। শহরটিতে যাওয়ার চারটি প্রধান মহাসড়ক বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। অঙ্গরাজ্যের রাজধানী কলম্বিয়াও বন্যাক্রান্ত হয়েছে। এখানে কনগারি নদীর পানি ১২ ঘণ্টায় তিন মিটার (১০ ফুট) বেড়ে গেছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্মকর্তারা।