১৩ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সফরের শেষ ম্যাচ আজ সালমাদের

  • করাচীতে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে মুখোমুখি বাংলাদেশ ও পাকিস্তানী মেয়েরা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অনেক জল্পনা-কল্পনার সিরিজটা শেষ হতেই চলল। আর একটি মাত্র ম্যাচ, তারপরই বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেটারদের আলোচিত পাকিস্তান সফরটা শেষ হয়ে যাবে। আজ করাচীর সাউদার্ন ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ও শেষ ওয়ানডে। এখন পর্যন্ত এ সফরে কোন ম্যাচ জিততে পারেনি সফরকারী বাংলাদেশের মেয়েরা। দুই ম্যাচের টি২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে সালমা খাতুনরা। অবশ্য প্রথম ওয়ানডেতে শনিবার বেশ লড়াই করলেও মাত্র ২০ রানে হেরে যায়। আজ সে কারণে সিরিজ বাঁচাতে হলে জিততেই হবে সালমাদের।

পাকিস্তান সফর নিয়ে ছিল অনেক পর্যালোচনা। সবচেয়ে বড় বাধা ছিল নিরাপত্তা হুমকি। আর সেজন্য পাকিস্তান সফরে যাবে কিনা বাংলাদেশের মেয়েরা সেটা ঝুলে ছিল। তবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) কোনভাবেই হাল ছাড়েনি। কারণ এর আগে দুটি করে ওয়ানডে ও টি২০ ম্যাচের সিরিজ বাংলাদেশে খেলে গেছে পাকিস্তানের মেয়েরা। দ্বিপাক্ষিক সিরিজের ফিরতি আসর হিসেবে বাংলাদেশের মেয়েদের পাক সফরে যাওয়ার জন্য চাপপ্রয়োগ করে তারা। অবশ্য সার্বিক নিরাপত্তা দেয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত করার পরই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সেটা খতিয়ে দেখে নিশ্চিত হয়ে শেষ পর্যন্ত দল পাঠিয়েছে। নিরাপত্তা শঙ্কার কারণে অজানা উদ্বেগ এবং দীর্ঘদিন ক্রিকেটের বাইরে থাকার কারণে পাকিস্তান সফরে টি২০ সিরিজে কিছুই করতে পারেনি বাংলাদেশের মেয়েরা। খুব সহজভাবেই আত্মসমর্পণ করেছে পাক মেয়েদের কাছে। কিন্তু রবিবার প্রথম ওয়ানডেতে বেশ লড়াই করেছে বাংলাদেশের মেয়েরা।

পুরো সফরেই বাংলাদেশের মেয়েদের বড় ধরনের সমস্যা ছিল ব্যাটিংয়ে। দলের বোলাররা ভাল করতে পারলেও ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় সাফল্য আসেনি। প্রথম ওয়ানডেতেও পাক মেয়েদের মাত্র ২১৪ রানের মধ্যে আটকে রাখতে পারলেও ব্যাটিং ব্যর্থতা কাল হয়েছে। একমাত্র রুমানা আহমেদ ৭০ রানের একটি ইনিংস খেলে লড়াই করেছেন। তাকে যোগ্য সমর্থন দেয়ার মতো আর কোন ব্যাটার ছিল না। শেষ পর্যন্ত ১৯৪ রান তুলতে পেরেছিল বাংলাদেশের মেয়েরা। অধিনায়ক সালমাও ব্যাট হাতে তেমন কিছু করতে পারছেন না। যদিও বল হাতে ফর্মেই আছেন তিনি। সবচেয়ে বড় সমস্যা টপঅর্ডারদের ব্যর্থতা। আজ সেটা কাটিয়ে ওঠার লড়াই বাংলাদেশের মেয়েদের। সব ম্যাচ করাচীর এই ভেন্যুতেই খেলেছে বাংলাদেশ মহিলা দল। আজও শেষ ম্যাচে একই ভেন্যুতে খেলতে নামবে সালমারা। এখানে টি২০ সিরিজে ২-০ ব্যবধানে আর প্রথম ওয়ানডে হেরে ১-০ ব্যবধানে সিরিজে পিছিয়ে আছে সফরকারীরা।

অথচ গত বছর বাংলাদেশ সফরে এসে ভরাডুবি হয়েছিল সানা মিরের পাকিস্তান দলের। সেবার দুই ওয়ানডেতেই সালমারা হারিয়ে দিয়েছিলেন সানা মিরদের। এবার পাক মেয়েরা যেন প্রতিশোধের মিশনে নেমেছে নিজ দেশে। কিন্তু সেটা ঠেকাতে হবে সালমাদের। সফরের শেষটা সফলতার মধ্যে হলে পরবর্তীতে একটা অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করবে সালমাদের জন্য। সেজন্য অবশ্য আজকের লড়াইটা বেশ কঠিনই হবে। এর মধ্যে আবার অধিনায়ক সালমা উর্দু ভাষায় সংবাদ সম্মেলনে কথা বলে পড়েছেন বিপাকে। সেদিক থেকেও একটা চাপ রয়েছে। কারণ বিসিবি জানিয়ে দিয়েছে উর্দুতে কথা বলা যাবে না। আর টানা তিন ম্যাচ হারের মানসিক চাপ তো আছেই। এসবই জয় করে আজ ঘুরে দাঁড়ানোর চ্যালেঞ্জ বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দলের। আজ ম্যাচ শেষেই দেশে ফেরার বিমান ধরবেন সালমারা।