২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রস্তুতি ম্যাচে মামুনুলদের কাছে হার বাফুফে একাদশের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সোমবার সাভারের জিরানির বিকেএসপিতে অনুষ্ঠিত অনুশীলন ম্যাচে ৪-১ গোলের ব্যবধানে বাফুফে একাদশকে হারিয়েছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। জাতীয় দলের হয়ে একটি করে গোল করেন জুয়েল রানা, রেজাউল করিম রেজা, ওয়াহেদ আহমেদ ও নাবিব নেওয়াজ জীবন। আর বাফুফে একাদশের হয়ে একটি গোল করেন তৌহিদুল আলম সবুজ। জাতীয় দলের ইতালিয়ান কোচ ফ্যাবিও লোপেজ এই ম্যাচে নিজ দলের খেলোয়াড়দের ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে বিভিন্ন পজিশনে খেলিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছেন। ৪১ জনের প্রাথমিক দল থেকে যে ১২ জনকে ছেঁটে ২৯ জনের দল করা হয়েছে, সেই বাদ পড়াদের একজন সবুজ জাতীয় দলের বিরুদ্ধে এক গোল করে উপেক্ষার জবাব দিয়েছেন ভালমতোই!

অবশিষ্ট একাদশের সব ফুটবলারই ছিলেন বাংলাদেশী, অর্থাৎ তাদের পক্ষে কোন বিদেশী ফুটবলার খেলেননি। এ নিয়ে টানা দুটি অনুশীলন ম্যাচেই জিতল জাতীয় দল। এর আগে তারা বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ১-০ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ অনুর্ধ-১৯ জাতীয় ফুটবল দলকে। জাতীয় দলের হয়ে এই ম্যাচে অসুস্থতা-ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি ফরোয়ার্ড জাহিদ হাসান এমিলি, মিডফিল্ডার সোহেল রানা, উইঙ্গার জাহিদ হোসেন, ডিফেন্ডার ইয়াসিন খান, লেফট ব্যাক আতিকুর রহমান মিশু ও গোলরক্ষক শহীদুল আলম সোহেল। সুস্থ থাকলেও ভিন্ন কারণে খেলানো হয়নি এ্যাটাকিং মিডফিল্ডার হেমন্ত ভিনসেন্ট বিশ্বাসকে। এমিলি ২৯ জনের প্রাথমিক দল থেকে বাদ পড়েছেন পেটের টিউমার অস্ত্রোপচার করার কারণে। অনুশীলনে পাওয়া মাংসপেশির চোট কাটাতে সোহেলের লাগবে তিন সপ্তাহ, জাহিদের চোট গোড়ালিতে। ডিফেন্ডার ইয়াসিন খান নিপতিত হয়েছেন টনসিল বৃদ্ধির সমস্যায়। হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে দল থেকে ছিটকে পড়েছেন মিডফিল্ডার সোহেল রানা। লেফট ব্যাক আতিকুর রহমান মিশুর জ্বর সমস্যা। প্রতি রাতে জ্বর আসে তার। গোলরক্ষক শহীদুল আলম সোহেলও পুরোপুরি সুস্থ নন। তবে এখনও ক্যাম্পে আছেন তিনি। এদিকে শুক্রবার টিউমার অপসারণে পেটে অপারেশন করিয়েছেন এমিলি। জনকণ্ঠকে তিনি ফোনে জানান, ‘৩০ মিনিটের অপারেশন ছিল ওটা। জীবনের প্রথম। তাই খুব ভয় পেয়েছিলাম। তবে কোন ব্যথা পাইনি। কারণ অপারেশনের জায়গাটা অবশ করে নেয়া হয়।’ অপারেশনের পর এক ঘণ্টা বিশ্রাম নিয়ে হাসপাতাল থেকে বাসায় চলে যান এমিলি, ‘ডাক্তার বলেছেন ৪-৫ দিন পূর্ণ বিশ্রাম নিলেই আমি সেরে উঠব। আবার আগের মতো মাঠে গিয়ে অনুশীলন করতে পারব। তবে ১৩ অক্টোবর কিরগিজস্তানে গিয়ে বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলা হচ্ছে না।’ ফিফা বিশ্বকাপের (রাশিয়া ২০১৮) মূলপর্বে যেতে হলে আগে দরকার বাছাইপর্বের চড়াই-উতরাই পেরুনো। সেই পরীক্ষাই এখন দিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল।

এশিয়া জোনের ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের আট ম্যাচের মধ্যে চারটিই খেলে ফেলেছে ‘বেঙ্গল টাইগার্স’রা। এর মধ্যে হেরেছে তিনটিতেই (অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৫-০, জর্দানের কাছে ৪-০ এবং কিরগিজস্তানের কাছে ৩-১ গোলে), ড্র করেছে একটিতে (তাজিকিস্তানের সঙ্গে ১-১)। বোঝাই যাচ্ছে, পরীক্ষা যেটুকু হয়েছে, খুব একটা ভাল হয়নি। তবে এখনও যতটুকু বাকি আছে, সেগুলোতে যদি মোটামুটি ভাল রেজাল্ট করা যায়, তাহলে মূলপর্বে যেতে না পারলেও একটা সম্মানজনক পর্যায়ে যেতে পারবে ফ্যাবিও লোপেজের শিষ্যরা।