০৬ অক্টোবর ২০১৫

৬ পণ্যের মোড়কে পাটের ব্যবহার বাধ্যতামূলক

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ‘পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন, ২০১০’ অনুযায়ী ধান, চাল, গম, ভুট্টা, সার ও চিনি মোড়কীকরণে পাটের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করেছে সরকার। পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন পুরোপুরি বাস্তবায়নে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ২৫ থেকে ৩১ অক্টোবর দেশব্যাপী সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনা করা হবে। সচিবালয়ে মঙ্গলবার এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম এ তথ্য জানান।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আইন অনুযায়ী ছয়টি পণ্য মোড়কীকরণে পাটের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইনের প্রয়োগ ও বাস্তবায়নে স্বরাষ্ট্র, বস্ত্র ও পাট, পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়, পাট অধিদফতর, পরিবেশ অধিদফতর, জেলা প্রশাসন, পুলিশ ও র‌্যাবের সহযোগিতায় আগামী ২৫ থেকে সপ্তাহব্যাপী সড়ক, মহাসড়ক চাল উৎপাদকারী এলাকা ও ঢাকার প্রবেশ মুখগুলোসহ সারাদেশে সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনা করা হবে। তিনি আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, পলিথিন ব্যাগ ব্যবহারকারী ব্যবসায়ী অথবা স্টেক হোল্ডারদের লাইসেন্স বাতিল করা হবে। প্রতিমন্ত্রী পাটজাত পণ্যকে পরিবেশবান্ধব উল্লেখ করে বলেন, আইনের যথাযথ বাস্তবায়নের পর স্থানীয়ভাবে পরিবেশবান্ধব পাটজাত পণ্যের উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকারের বলিষ্ঠ পদক্ষেপে দেশের পাট চাষীরা এ বছর সুফল পেয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের পাট শিল্প এবং পাট চাষীদের জীবন মানের উন্নয়ন এই আইন কার্যকরের ওপর নির্ভর করছে।

ব্লক এ্যাকাউন্টের জন্য বৈদেশিক মুদ্রা সংগ্রহ করা যাবে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বিদেশে শিক্ষা লাভের উদ্দেশ্যে ব্লক এ্যাকাউন্ট খোলার জন্য শিক্ষার্থীরা অনুমোদিত ডিলারদের কাছ থেকে বৈদেশিক মুদ্রা সংগ্রহ করতে পারবে। সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রা নীতি বিভাগ থেকে জারিকৃত সার্কুলারে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, বিদেশে শিক্ষা লাভের উদ্দেশ্যে ভিসা প্রাপ্তি ও ভর্তির জন্য বৈদেশিক মুদ্রার ব্লক এ্যাকাউন্ট খুলতে হয়। বিষয়টি বিবেচনা করে অনুমোদিত বিষয়ে ভর্তির ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এ ধরনের এ্যাকাউন্ট খোলার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় বৈদেশিক মুদ্রা বিনিময়ের অনমুতি প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে এ ধরনের বিনিময়ের পূর্বে অনুমোদিত ডিলারদের অবশ্যই ব্লক এ্যাকাউন্ট খোলার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সরবরাহ করতে হবে। ভিসা পাওয়া না গেলে বিদেশে প্রেরিত অর্থ ফেরত দেয়া হবে এমন প্রমাণাদিও সরবরাহ করতে হবে। সার্কুলারে আরও বলা হয়, প্রয়োজনীয় অর্থ প্রেরণের এক বছরের মধ্যে উক্ত শিক্ষার্থী বিদেশ গমনের করেছেন কিনা সে বিষয়েও অনুমোদিত ডিলারদের তথ্য সংগ্রহ করতে হবে।